দেশে দেশে ফেসবুক-টুইটার নিষিদ্ধ চান ট্রাম্প

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, জুন ৯, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটাল হিলে হামলার ঘটনায় উস্কানি দেয়ার অভিযোগে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করে ফেসবুক-টুইটার। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তিনি।

দিনকয়েক আগে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ট্রাম্পকে আরও ২ বছরের নিষেধাজ্ঞা দেয়। এতে চটে গিয়ে ফেসবুককে হুমকি দিয়েছেন সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এদিকে, নাইজেরিয়া সরকার দেশটিতে টুইটার নিষিদ্ধ করেছে গত ৬ জুন। সেই বিষয়টি টেনে গতকাল মঙ্গলবার (৮ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, নাইজেরিয়াকে অভিনন্দন, কারণ তারা সাহসী কাজ করেছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর উচিত আফ্রিকার এই দেশটিকে অনুসরণ করা এবং ফেসবুক-টুইটার বন্ধ করে দেয়া।

ক্যাপিটাল হিলের ঘটনায় ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করে টুইটার। অন্যদিকে ফেসবুক তাকে নিষিদ্ধ করেছিল ‘অনির্দিষ্টকালের’ জন্য।

এরপর গত ৪ জুন সেই নিষেধাজ্ঞা বাড়ানো হয়েছে ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত। ‘শাস্তি’ বাড়ানো নিয়ে ফেসবুকের বক্তব্য- ডোনাল্ড ট্রাম্প উস্কানি বন্ধ করবেন, এমন কোনো নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিষিদ্ধ হয়ে ৩ মাস ‘প্রায় নিখোঁজ’ থাকার পর গত ৪ মে অনলাইনে ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য নতুন একটি প্ল্যার্টফর্ম নিয়ে হাজির হয়েছিলেন ট্রাম্প।

এর নাম ‘ফ্রম দ্য ডেস্ক অব ডোনাল্ড জে ট্রাম্প’। কিন্তু মাস না ঘুরতেই গত ৩ জুন সেটা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আইএ/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন