‘আমার শরীর, আমার ইচ্ছে’; ভারতে লাফিয়ে বাড়ছে ধর্ষণ, তবু নায়িকার এমন মন্তব্য

প্রকাশিত: ৭:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২১

ইসমাঈল আযহার
পাবলিক ভয়েস

ধর্ষণ, মহিলাদের ওপর ঘটে যাওয়া অপরাধমূলক ঘটনা ভারতে স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভারতের ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর ২০১৮ সালের রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারতে প্রতিদিন ৯১টি ধর্ষণ, ৮০টি খুন আর ২৮৯টি অপহরণের ঘটনা ঘটেছে।

অর্থাৎ, প্রতি ১৫ মিনিটে সেখানে একজন মহিলা ধর্ষণের শিকার হন। কিন্তু বেসরকারি পরিসংখ্যান বলছে, বাস্তবে এই সংখ্যা আরও বেশি। প্রতিদিন ভারতের ধর্ষণের শিকার হন শতাধিক নারী। ২০১৮ এর হার ২০২১ সালে এসে নিঃসন্দেহে বেড়েছে তবু পোশাক নিয়ে খোলাখুলির বিষয়ে মন্তব্য করতে ছাড়লেন না ভারতীয় টিভি শিল্পী দিব্যাঙ্কা ত্রিপাঠি।

দক্ষিণ আফ্রিকায় রয়েছেন দিব্যাঙ্কা। প্রতিদিনি শুটিংয়ের কোনো না কোনো ছবি প্রকাশ্যে আসছে। তার পোশাক নিয়ে এবার মন্তব্য করেন সমালোচকরা। পোশাকের সঙ্গে কেন ওড়না পরেননি এ প্রশ্ন করা হয়েছে তাকে। এই প্রশ্নের  ভয়াবহ জবাব দিয়েছেন নায়িকা।

‘ক্রাইম পেট্রোলে আপনি ওড়না পরেননি কেন?’ এমন প্রশ্নের জবাবে দিব্যাঙ্কা বলেন, ‘এই আপনাদের মতো মানুষেরা যাতে ওড়না ছাড়া মেয়েদেরও সম্মানের চোখে দেখা শুরু করেন, সেই কারণেই ওড়না পরিনি আমি। দয়া করে নিজের দৃষ্টিভঙ্গি বদলান এবং আপনাকে ঘিরে এরকম মানুষ যারা রয়েছেন তাদেরকেও সাহায্য করুন। একজন নারী কী পরবে আর কী পরবে না তা নিয়ে কুমন্তব্য করা বা তাদের দিকে আঙুল তোলা বন্ধ করুন। আমার শরীর, আমার ইচ্ছে, আর আপনার ভদ্রতা, আপনার ইচ্ছে’। এই রিট্যুইট দেখে অভিনেতার পাশে দাঁড়িয়েছেন তার ভক্তরা।

এর পরই দিব্যাঙ্কাকে উদ্দেশ্য করে আবার একজন লেখেন, ‘এটাও তো হতে পারে যে ব্যক্তি আপনাকে ওড়না পরার কথা জানতে চেয়েছেন তিনিও আপনার ভক্ত। আপনাকে ওড়না পরে দেখতে তার ভালো লাগে।’

এর জবাবে দিব্যাঙ্কা মিষ্টি কথায় লেখেন, ‘তা হতেই পারে। যদি তিনি আমার ভক্ত হন, তবে তার ভালোবাসাকে স্যালুট। কিন্তু মেয়েদের পোশাক নিয়ে প্রশ্ন করা আজকের সমস্যা নয়। এটা যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। আলোচনা করার তো অনেক বিষয় রয়েছে, ওড়না সেই তুলনায় অত্যন্ত ক্ষুদ্র একটি বিষয়।’

আইএ/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন