কানাডায় ইসলামবিদ্বেষ: মুসলিম পরিবারের ৪ সদস্যকে হত্যা

প্রকাশিত: ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ৮, ২০২১

কানাডার অনটারিও প্রদেশের লন্ডন শহরে একটি মুসলিম পরিবারের ওপর ট্রাক উঠিয়ে দিয়েছে এক বর্ণবিদ্বেষী চালক। এতে ওই পরিবারের ৪ সদস্য নিহত হয়েছেন।

সোমবারের এ নৃশংস ঘটনায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো নিহতদের প্রতি গভীর শোক এবং ধর্মবিদ্বেষের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। খবর বিবিসি ও আনাদোলুর।

এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, আমি খবরটি শুনে আতঙ্কিত, কানাডায় ইসলামবিদ্বেষ বা যে কোনো ধর্মবিদ্বেষীদের স্থান হবে না।

সোমবারের ওই নৃশংস হামলায় মুসলিম পরিবারটির ৯ বছরের আরেক শিশুও গুরুতর আহত হয়েছে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

পুলিশ হতাহতদের নাম প্রকাশ করেনি। নিহতদের মধ্যে আছেন, ৭৪ বছরের এক বৃদ্ধা, ৪৬ বছরের এক পুরুষ, ৪৪ বছরের এক নারী এবং ১৫ বছরের এক কিশোরী।

কানাডার স্থানীয় সময় রোববার রাত পৌনে ৯টার দিকে লন্ডনের রাস্তায় মুসলিম পরিবারের সদস্যদের ওপর ট্রাক উঠিয়ে দেয় ন্যাথানিয়েল ভেল্টম্যান নামে ২০ বছর বয়সী এক বর্ণবাদী চালক।

গ্রেফতারের পর পুলিশের কাছে চালক স্বীকার করেছে, মুসলিম বলেই তাদের গাড়িচাপা দিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের পর পালিয়ে যাওয়ার সময় ঘটনাস্থল থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে তাকে আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলে প্রেরণ করা হয়।

লন্ডনের মেয়র এড হোল্ডার এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। লন্ডনের গোয়েন্দা বিভাগের ইন্সপেক্টর পল ওয়েট বলেছেন, আমাদের কাছে প্রমান আছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড।

মুসলিম পরিবারটি রাস্তা দিয়ে হেটে যাওয়ার সময় তাদের গাড়িচাপা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

এন.এইচ/

মন্তব্য করুন