সেপ্টেম্বরের মধ্যেই আফগান যুদ্ধের অবসান চান বাইডেন

প্রকাশিত: ১২:৩৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০২১

আফগানিস্তানে যুদ্ধ অবসানের সময় হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, আমি চতুর্থ প্রেসিডেন্ট হিসেবে আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা উপস্থিতি নিয়ে কথা বলছি। এই সমস্যাকে আমার আর কোনো উত্তরসূরির জন্য জিইয়ে রাখতে চাচ্ছি। আফগানিস্তান থেকে সৈন্য প্রত্যাহারের মাধ্যমেই এই যুদ্ধের অবসান হবে।

দায়িত্ব গ্রহণের ১০০ দিন উপলক্ষে হোয়াইট হাউসে দেওয়া এক ভাষণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এসব কথা বলেন। আগামী সেপ্টেম্বরেই হয়তো বাইডেন আফগানিস্তান থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করে নেবেন। ওই মাসেই আফগান যুদ্ধের ২০ বছর পূর্ণ হবে।

বাইডেন তার ভাষণে বলেছেন, এখন সময় হয়েছে আমেরিকার ইতিহাসের দীর্ঘতম যুদ্ধের অবসান ঘটানোর। তবে আমেরিকা সৈন্য প্রত্যাহার করে নিলেও তার সরকার আফগানিস্তানের সরকারকে সহায়তা করে যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, এ যুদ্ধ প্রজন্মের পর প্রজন্ম চালিয়ে যাওয়ার জন্য শুরু করা হয়নি। আমেরিকা যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে যুদ্ধে গিয়েছিল, তা অর্জিত হয়েছে।

বক্তৃতায় বাইডেন জানান, আগামী ১ মে থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হবে। আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের আগেই শেষ মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ছেড়ে যাবেন। এরমধ্য দিয়েই দুই দশকের আফগান যুদ্ধের অবসান ঘটবে।

তালেবানদের উৎখাত করতে ২০০১ সালের অক্টোবরে আফগানিস্তানে অভিযান চালায় যুক্তরাষ্ট্র। তাদের দাবি ছিল, তালেবানরা ওসামা বিন লাদেন এবং অন্য আল-কায়েদা নেতাদের লালন করেছে, যারা ৯/১১ এর হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগের হিসাব মতে, ২০০১ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আফগানিস্তানে মার্কিন সামরিক ব্যয় হয়েছে ৭৭৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর সঙ্গে মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগ যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ইউএসএআইডি এবং অন্য সরকারি সংস্থাগুলোর সাথে মিলে ৪৪ বিলিয়ন ডলার বিভিন্ন ধরনের পুননির্মাণ প্রকল্পে ব্যয় করেছে। সরকারি তথ্য অনুযায়ী সব মিলিয়ে ২০০১ সালে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ৮২২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ হয়েছে। এর বাইরেও পাকিস্তানে যে ব্যয় হয়েছে তার হিসাব ধরা হয়নি। পাকিস্তানকে অভিযান চালানোর ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

মন্তব্য করুন