সামরিক অভ্যুত্থান মানবতাবিরোধী অপরাধ: এরদোয়ান

প্রকাশিত: ১০:০৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১

সামরিক অভ্যুত্থানকে মানবতাবিরোধী অপরাধ বলে অভিহিত করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। ১৯৯৭ সালে তুরস্কে হওয়া সামরিক অভ্যুত্থানের ২৪তম বার্ষিকীতে রোববার এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ কথা বলেন।

বার্তা সংস্থা আনাদোলুর খবরে বলা হয়েছে, এদিন সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। জানান, সে সময় ইস্তাম্বুলের মেয়র থাকাকালীন একটি কবিতা পড়ার জন্য তাকে কারাগারে যেতে হয়েছিল। তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, সকল বাধা সত্ত্বেও আমি গর্বের সহিত সম্মানিত তুর্কি জাতিকে তাদের প্রথম নির্বাচিত ও জনপ্রিয় প্রেসিডেন্ট হিসেবে সেবা প্রদান করছি। তিনি বলেন, সামরিক অভ্যুত্থান মানবতাবিরোধী অপরাধ।

১৯৯৭ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি আমি সামরিক অভ্যুত্থানের অভিজ্ঞতা পেয়েছি এবং সে সম্পর্কে সচেতন আছি। জাতীয় সুরক্ষা কাউন্সিলের বৈঠকের পর তৎকালীন এরবাকানের সরকার পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিল এবং পরবর্তীতে তার ওয়েলফেয়ার পার্টিকেও অবৈধ ঘোষণা করা হয়। পরে নতুন বেসামরিক সরকার তুরস্কের “উত্তর আধুনিক” অভ্যুত্থান নামে একটি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল।

২০২০ সালের ডিসেম্বরে রাষ্ট্রপক্ষের একজন প্রসিকিউটর অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগে সাবেক দুই জেনারেলের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সুপারিশ করেছিলেন। প্রসিকিউটর অনুরোধ করেছিলেন যেন তৎকালীন জেনারেল স্টাফ চিফ ইসমাইল হাক্কি করাদাই এবং তার উপ-সহকারী সেবিক বীরসহ ৬০ জন সন্দেহভাজনকে বিচারের জন্য হাজির করা হয়। মামলায় মোট ১০৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন