আল্লাহর সঙ্গে লক্ষ মানুষের সম্পর্ক জুড়ে দেয় চরমোনাই মাহফিল

প্রকাশিত: ৬:১৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১

চরমোনাই মাহফিলে উদ্বোধনি বয়াসে সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, নিয়তকে ঠিক করতে হবে। এখানে কেউ দুনিয়াবী নিয়তে এসে থাকলে তার কোনো ফায়দা হবে না। বরং এখানে উপস্থিত হওয়ার দ্বারা একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টিই উদ্দেশ্য হতে হবে। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) জোহরের পর তিনি এসব কথা বলেন।

রেজাউল করীম বলেন, ‘চরমোনাইকে আল্লাহ তায়ালা কবুল করেছেন। এজন্য হাজার হাজার, লক্ষ লক্ষ আল্লাহ ভোলা বান্দাদের আল্লাহর সাথে সম্পর্ক জুড়িয়ে দিয়েছে চরমোনাই মাহফিল। চরমোনাই মাহফিল থেকে মানুষ হেদায়াত পেয়েছে।’

যারা চরমোনাইয়ের বিরোধিতা করে তাদের উদ্দেশে চরমোনাই পীর বলেন, ‘আপনারা চরমোনাই এসে দেখে যান, এ ময়দানে কিসের আলোচনা হয়? এখানে কুরআন সুন্নাহর আলোচনা হয়। যারা চরমোনাই আসেন তারা আত্মার খোরাক লাভ করেন। দুনিয়াবি কোনো স্বার্থ এখানে হাসিল হবে না। দুনিয়ার মামলা-মুকাদ্দমা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য চরমোনাই ময়দান নয়। বরং আখেরাতের পুঁজি লাভের ময়দান হলো চরমোনাই।’

আজ বরিশালের কীর্তনখোলা নদীর তীরে চরমোনাই ময়দানে ৩দিন ব্যাপী বার্ষিক মাহফিল (ফাল্গুন) শুরু হয়েছে। মাহফিল চলবে আগামী ২৭ তারিখ বাদ ফজর পর্যন্ত। চরমোনাই পীর সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীমের আখেরী মুনাজাতের মাধ্যমে ২৭ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) বাদ ফজর শেষ হবে এ মাহফিল।

মাহফিলের ৩দিনে মোট ৭টি বয়ান হবে। এর মাঝে ৫টি বয়ান করবেন চরমোনাইয়ের প্রধান পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম। আর ২টি বয়ান করবেন মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম। এছাড়াও মাহফিলে আগত বিদেশী উলামায় কেরামগণ মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বয়ান করবেন বলে।

মন্তব্য করুন