ভারতের ভ্যাকসিন পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৬:৫১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১

ভ্যাকসিন ছাড়া করোনাভাইরাস নির্মূল করা দুরূহ বিষয় উল্লেখ করে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আমরা দেশব্যাপী ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম শুরু করব। এই বিষয়ে আমাদের মন্ত্রী, সংসদ সদস্য (এমপি), সচিব যারা রয়েছেন, তাদেরকেও আহ্বান করব এই ভ্যাকসিনেশন প্রোগ্রামে যোগ দিতে। আমরা বলতে চাই পৃথিবীতে যত ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়েছে এটা সবচেয়ে নিরাপদ ভ্যাকসিন। ভ্যাকসিন ছাড়া এই রোগ নির্মূল করা দুরূহ বিষয়।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীতে একটি হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। টিকা নিতে সবাইকে উৎসাহিত করতে জনপ্রতিনিধিদের আহ্বান জানান তিনি।

জাহিদ মালেক বলেন, পৃথিবীতে যত নেগলেক্টেদ ট্রপিকাল ডিজিজ আছে, বেশিরভাগ রোগই আমরা ভ্যাকসিনের মাধ্যমে নির্মূল করতে সক্ষম হয়েছি। পোলিও নির্মূল হয়েছে ভ্যাকসিনেশনের মাধ্যমে। কাজেই ভ্যাকসিন আমাদেরকে নিতে হবে। ভ্যাকসিন নিলে সাধারণত কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে।

বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষ আমরা কোনো না কোনো রোগের ভ্যাকসিন নিয়েছি। আমরা যারা ভ্যাকসিন নিয়েছি তারা সবাই ভালো আছি। এই ভ্যাকসিনটি খুবই নিরাপদ।

আমরা অনুরোধ করবো শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে যারা মুরুব্বি রয়েছেন তাদেরকেও উপজেলায় এসে ভ্যাকসিন নিতে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সংসদ সদস্য, চেয়ারম্যান, মেম্বার যারা রয়েছেন সবাইকে আহ্বান করবো আপনারা আপনাদের এলাকার জনগণকে ভ্যাকসিন সেন্টারে নিয়ে যাবেন এবং তাদেরকে ভ্যাকসিন দেবেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে ৫শ’র বেশি মানুষ ভ্যাকসিন নিয়েছেন। তারা সবাই ভালো আছেন। ইতোমধ্যে সব জেলায় ভ্যাকসিন পৌঁছে গেছে। উপজেলায় পর্যন্ত পৌঁছে যাবে। আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে ভ্যাকসিনি কার্যক্রম শুরু হবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি এবং সাবেক সংসদ সদস্য ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি ডা. ইকবাল আর্সেনাল এবং স্বাচিপ মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ প্রমুখ।

মন্তব্য করুন