২২ জানুয়ারী জাতীয় যুব কনভেনশন ; সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন

প্রকাশিত: ৩:১৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

বাংলাদেশের প্রভাবশালী ইসলামী রাজনৈতিক দল ‘ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের’ সহযোগি সংগঠন ইসলামী যুব আন্দোলনের তৃতীয় জাতীয় যুব কনভেনশন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে শুক্রবার।

আগামীকাল ২২ জানুয়ারি (শুক্রবার) রাজধানী ঢাকার কাকরাইলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে কনভেনশনটি অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথমে এ প্রোগ্রামটি গুলিস্তানের কাজী বশির মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো এবং সে মর্মেই প্রচারণা চালানো হয়েছিলো। কিন্তু সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল মুহা. নেসার উদ্দিন তার এক ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন – ‘বিশেষ কারণ বশত : জাতীয় যুব কনভেনশন গুলিস্তান কাজী বশির মিলনায়তনের পরিবর্তে কাকরাইল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে।’

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জাতীয় যুব কনভেনশনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়াও থাকবেন দলের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

প্রোগ্রাম উপলক্ষে গত ১৯ জানুয়ারি সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যুব কনভেনশনের প্রস্তুতিমূলক বৈঠক হয়েছিলো।

বৈঠকে সংগঠনের সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা নেছার উদ্দিন বলেছেন, জাতীয় যুব কনভেনশনের সকল প্রস্তুতি ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এই যুব কনভেনশন সুন্দর একটি সমাজ বিনির্মাণে দেশের প্রাণশক্তি যুবকদের জন্য মাইলফলক হয়ে থাকবে।

এই যুব কনভেনশন এর মাধ্যমে আমরা জাতিকে একটি নতুন বার্তা দিতে চান বলেও জানিয়েছেন তিনি। বার্তাটি হলো – ‘দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষা ও ইসলামের সুমহান আদর্শ প্রতিষ্ঠা করার জন্য ইসলামী আন্দোলনের আমির হযরত পীর সাহেব চরমোনাই নেতৃত্বে যুবসমাজ ঐক্যবদ্ধ হবে।’

এছাড়াও আগামিকাল অনুষ্ঠিতব্য যুব কনভেনশন নিয়ে ফেসবুকে বিশেষ কিছু নির্দেশনা দিয়েছেন দলটির সেক্রেটারী জেনারেল।

নির্দেশনাগুলো হলো –

  • জাতীয় যুব কনভেনশন গুলিস্তান কাজী বশির মিলনায়তনের পরিবর্তে কাকরাইল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে।

 

  • মিলনায়তনের ধারণ ক্ষমতা ও কর্তৃপক্ষের বেধে দেয়া কানুন-এর বাধ্যবাধকতার কারনে প্রত্যেক জেলার জন্য সর্বশেষ নির্দিষ্ট করে দেয়া সংখ্যার অধিক ডেলিগেট না আসতে অনুরোধ করা হয়েছে।

 

  • ৩য় জাতীয় যুব কনভেনশনকে স্মরণীয় করে রাখতে এবার দলীয় পতাকার আদলে টি-শার্ট, পেন স্ট্যান্ড, বুলেটিনসহ প্রায় ১০টি গিফট আইটেম প্রস্তুত করা হয়েছে। যারা কনভেনশনে আসার সুযোগ পাচ্ছেন না তারা চাইলে কনভেনশনে আগত প্রতিনিধিদের মাধ্যমে এগুলো সংগ্রহ করতে পারেন।

 

  • কনভেনশনে আগত ডেলিগেটদেরকে নিজ জেলা/মহানগর শাখার প্যাডে অংশগ্রহণকারী সকলের নাম পদবী লিখে  সকাল ৮টার পূর্বে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জমা দিয়ে নির্দিষ্ট নিয়মে মিলনায়তনে প্রবেশ করার ডকুমেন্টস কালেকশন করতে হবে। ডকুমেন্টসবিহীন কেউ মিলনায়তনে প্রবেশ করতে পারবেন না। নির্ধারিত সময়ের পরে ডেলিগেট কাউন্টার ক্লোজ হয়ে যেতে পারে।

 

  • সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কনভেনশনের কার্যক্রম চলমান থাকবে। প্রত্যেকের আসন নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সংরক্ষিত থাকবে।

 

  • বিকাল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত “কলরব শিল্পীগোষ্ঠীর” পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হবে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

পাবলিক ভয়েস ডেস্ক/এইচআরআর/আরআর

মন্তব্য করুন