দুঃখ প্রকাশ করে ম্যাক্র্যোঁকে চিঠি লিখলেন এরদোগান

প্রকাশিত: ৮:০৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

গত বছর বিভিন্ন ইস্যুকে কেন্দ্র ফ্রান্স ও তুরস্কের কূটনৈতিক সম্পর্ক একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকে। আঙ্কারা থেকে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে প্যারিসে পর্যন্ত ডেকে নেয়া হয়েছিল। সম্পর্কের তিক্ততা শুরু হয় পূর্ব ভূমধ্যসাগরে তুরস্কের তেল-গ্যাস অনুসন্ধান করা নিয়ে।

গ্রিস এবং গ্রীক সাইপ্রিয়টের অভিযোগ, তুরস্ক আন্তর্জাতিক সমুদ্রসীমা লঙ্ঘন করে এ কার্যক্রম চালাচ্ছে। তাতে সায় দেয় ফ্রান্স সরকারও। পরবর্তীতে ইসলাম ও মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) এর ব্যাঙ্গাত্বক কার্টুন প্রকাশ এবং ফরাসি সরকার কর্তৃক সেটিকে সমর্থন দেয়াকে কেন্দ্র করে আঙ্কারা-প্যারিসের সম্পর্ক বেশ খারাপের দিকে গড়ায়। সে সময় ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্র্যোঁনের মানসিক চিকিৎসা করানো দরকার বলেও মন্তব্য করেছিলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান।

নতুন বছরকে উপলক্ষ্য করে এবং পূর্বের ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে ইতোমধ্যে ফরাসি প্রেসিডেন্টকে চিঠি লিখেছেন এরদোগান। সেই চিঠির জবাব দিয়েছেন ইমানুয়েল ম্যাক্র্যোঁন। চিঠিতে আবারও সুসম্পর্ক গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন এরদোগান। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে তথ্যটি জানিয়েছেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু।

তিনি জানান, এরদোগানের চিঠির জবাবে ফরাসি প্রেসিডেন্ট শুরুতেই লিখেছেন ‘প্রিয় তাইয়্যেপ’। সেখানে তুরস্ককে ইউরোপের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার বলেও আখ্যা দেন ম্যাক্র্যোঁন। আঙ্কারার সঙ্গে ইতিবাচক সম্পর্ক গড়ে তোলার পাশাপাশি দুই নেতার বৈঠক আয়োজনেরও ইচ্ছে পোষণ করেন। আঙ্কারা জানিয়েছে, চিঠিতে সিরিয়া, লিবিয়া ও সন্ত্রাসবাদসহ আঞ্চলিক বিভিন্ন ইস্যুতে দ্বিপক্ষীয় আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।

মন্তব্য করুন