জাপানে কবর দেওয়ার জায়গা মিলছে না মুসলিমদের

প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০

জাপানে বসবাসকারী মুসলিমরা সাংস্কৃতিক বিধিনিষেধের কারণে প্রিয়জনকে সমাহিত করার মতো জায়গার সংকটে ভুগছেন বলে জানিয়েছে দেশটির প্রভাবশালী গণমাধ্যম নিক্কে।

জাপানে ৯৯ শতাংশ মৃতদেহ দাহ করা হয়। যার কারণে স্থানীয়রা কবর দেয়ার জন্য জায়গা দিতে চান না; অথবা দেন না বললেই চলে। কিন্তু ইসলাম ধর্মে মৃতদেহ পোড়ানো সম্পূর্ণ নিষেধ।

নিক্কের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাপানে বিভিন্ন দেশের নানান সংস্কৃতির প্রবাসীদের বসবাস বাড়তে থাকায় সমাধিক্ষেত্র নিয়ে সংকটও বড় হচ্ছে।

জাফর সাঈদ নামের ৩৯ বছর বয়সী এক পাকিস্তানি নাগরিক জানালেন নিজের অভিজ্ঞতার কথা। গর্ভপাতের কারণে ৯ বছর আগে তার বড় ছেলে পৃথিবীতে আসার আগেই মৃত্যুবরণ করে।

ছেলের জন্য কবরের জায়গা ম্যানেজ করতে পৌর অফিসে কয়েক ঘণ্টা ছোটাছুটি করতে হয় তাকে। শেষ পর্যন্ত যেখানে কবর দিতে পারেন, সেখানে এখন আর জায়গা নেই। ইতিমধ্যে ২০ মুসলিমের শেষ ঠিকানা হয়েছে ওই গোরস্থানে।

কর্মসংস্থানের সুবিধা বাড়ায় জাপানে এশিয়ার অনেক মুসলিম দেশ থেকে প্রবাসীদের বসবাস গত কয়েক বছরে বেড়েছে। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে বাংলাদেশি আছেন ১৬ হাজার ৬০০’র মতো। ইন্দোনেশিয়ান ৬৬ হাজার। পাকিস্তানি আছেন প্রায় ১৮ হাজার।

আই.এ/

মন্তব্য করুন