ইউপি পরিষদে সেবা নিতে গিয়ে ধর্ষণ গৃহবধূ, গ্রেফতার চেয়ারম্যান

প্রকাশিত: ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২০

গাইবান্ধায় ন্যাশনাল সার্ভিসের কর্মীকে একাধিকবার ধর্ষণের মামলায় এক ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের পর ধারণকৃত ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাত ১০ টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাত ৮ টার দিকে ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার পর লক্ষীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাদলকে (৪৭) গ্রেফতার করে পুলিশ।

নির্যাতনের স্বীকার ওই নারীর অভিযোগ, চলতি বছরের ৩ মার্চ ন্যাশনাল সার্ভিসের প্রত্যয়ন আনতে গেলে ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান তার রুমে ডেকে নিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণসহ ভিডিও চিত্র ধারণ করেন চেয়ারম্যান বাদল। পরবর্তীতে ধর্ষণের ভিডিও ভাইরালের ভয় দেখিয়ে আরও একাধিকবার বিভিন্ন জায়গায় তাকে ধর্ষণ করা হয়। সর্বশেষ গত ১১ নভেম্বর নির্যাতিতার বাড়িতে গিয়ে তার স্বামীর অনুপস্থিতে ধর্ষণের সময় আশেপাশের লোকজন টের পেলে চেয়ারম্যান বাদল পালিয়ে যায়।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মজিবর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে  জানান, বুধবার (২৫ নভেম্বর) ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে।

মন্তব্য করুন