আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করবেন সালমান-এরদোগান

প্রকাশিত: ৮:৫০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০২০

সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ফোনে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানের সঙ্গে কথা বলেছেন। এ সময় দুই দেশের মধ্যকার টানাপোড়েনের অবসান ঘটাতে আলোচনার মাধ্যমে বিবাদমান সমস্যাগুলোর সমাধান করতে সম্মত হয়েছেন তারা।

সৌদি আরবে শনিবার জি-২০ সম্মেলনের শুরুর আগে গতকাল শুক্রবার দিনের শেষ ভাগে দুই নেতা ফোনে কথা বলেন। সৌদি রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এসপিএ, তুরস্কের ডেইলি সাবাহ, বার্তা সংস্থা রয়টার্স এবং মিডেল ইস্ট আই এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তুর্কি প্রেসিডেন্সি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দুই দেশের মধ্যকার ভঙ্গুর সম্পর্কের উন্নতি এবং বিবাদমান বিভিন্ন বিষয় সমাধানে আলোচনার পথ উন্মুক্ত রাখার বিষয়ে একমত হয়েছেন এরদোয়ান এবং সালমান। এ ছাড়া জি-২০ সম্মেলন নিয়েও তাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। জি-২০ এর বর্তমান সভাপতি সৌদি আরব। সেই হিসেবে দেশটিতে এবারের শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

অন্যদিকে, সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ জানিয়েছে, বাদশাহ সালমান জি-২০ এর কাঠামোর মধ্যে সমন্বিত প্রচেষ্টা গ্রহণের বিষয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।

প্রসঙ্গত, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই দুই দেশের মধ্যে অন্তর্দ্বন্দ্ব চলে আসছে। বিষয়টি নতুন মাত্রা পায় ২০১৮ সালে ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার মাধ্যমে। পরিস্থিতি এতটাই খারাপের দিকে যায় যে, বিগত কয়েক মাস ধরে তুর্কি পণ্য আমদানিতে অঘোষিত নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে সৌদি আরব। এ ব্যাপারে রিয়াদের পক্ষ থেকে দেশটির ব্যবসায়ীদের নির্দেশনাও দেওয়া হয় বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানায়।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, সম্প্রতি মার্কিন নির্বাচনে সৌদি সরকারের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরাজয়ে ‘হোঁচট’ খায় সৌদি প্রশাসন। নবনির্বাচিত ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে রিয়াদের সম্পর্ক ট্রাম্প প্রশাসনের মতো হবে না- এমন চিন্তা থেকেই তুরস্কের সঙ্গে দূরত্ব কমানোর উদ্যোগ নিয়েছেন সৌদি বাদশাহ। এর আগে সম্প্রতি তুরস্কের ইজমিরে যে ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হানে, তার পর দেশটিতে জরুরি ত্রাণ সরবরাহেরও নির্দেশ দেন সৌদি বাদশাহ।

আই.এ/

মন্তব্য করুন