শিক্ষা উপমন্ত্রীর উদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য ঈমানদার জনতার সাথে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল

প্রকাশিত: ৫:০৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০২০

ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারী তৌহিদী জনতা আলেম-ওলামাদের ঘাড় মটকে দেওয়ার শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল কর্তৃক হুমকির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী।

আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, চট্টগ্রামে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে গিয়ে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলাদেশের ইসলাম ধর্মের নেতৃবৃন্দ আলেম-উলামাদেরকে মৌলবাদী আখ্যায়িত করে তাদের ঘাড় মটকিয়ে দেয়ার উদ্ধত্য মূলক বক্তব্য মুসলমানদের সাথে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল। এ উস্কানিমূলক বক্তব্যের জন্য তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় প্রতিবাদী তৌহিদী জনতা তার বিরুদ্ধে গণ আন্দোলন শুরু করবে। তখন সৃষ্ট পরিস্থিতির জন্য সরকারকেই দায়িত্ব নিতে হবে।

আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী আরো বলেন, সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের লাগামহীন ইসলামবিদ্বেষী বক্তব্যের কারণেই সরকারের ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হচ্ছে। এদের লাগাম টেনে না ধরলে সরকার জনগণের আস্থা হারাবে এবং সরকারের প্রতি জনরোষ বাড়বে।

তিনি বলেন, অলি আউলিয়ার পূণ্যভূমি মুসলিম অধ্যুষিত বাংলাদেশে ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন করতে দেওয়া হবে না। সরকার ক্ষমতার জোরে এহেন ইসলামবিরোধী কর্মকাণ্ড করতে চেষ্টা করলে এ দেশের সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা যেকোনো মূল্যে তা প্রতিহত করবে ইনশাআল্লাহ।

এনএইচ/

মন্তব্য করুন