ইরফান ও তার দেহরক্ষী আদালতে

প্রকাশিত: ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০২০

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর ও হত্যাচেষ্টা মামলায় ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী জাহিদের সাত দিন করে রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে তাদের হাজির করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতে দণ্ডিত ইরফান ও তার দেহরক্ষীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে ২৭ অক্টোবর আদালতে আবেদন করে পুলিশ। সেই রিমান্ড আবেদনের শুনানি আজ হতে পারে বলে জানা গেছে।

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় আরেক আসামি এ বি সিদ্দিক ওরফে দীপুকে গ্রেফতারের পর ২৭ অক্টোবর আদালতে হাজির করে পুলিশ। আদালত তার তিন দিনের পুলিশি রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগের দিন ইরফানের গাড়ির চালক মিজানুর রহমানকে এক দিনের রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি পায় পুলিশ।

এর আগে, ২৭ অক্টোবর নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে মারধর, বিদেশি পিস্তল রাখা, অবৈধ অস্ত্র রাখাসহ বিভিন্ন অপরাধে ইরফানকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। গত ২৫ অক্টোবর রাতে রাজধানীর কলাবাগান সিগনালে এমপি হাজী মো. সেলিমের ‘সংসদ সদস্য’ লেখা সরকারি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করেন ডিএসসিসি ৩০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান সেলিম।

এ ঘটনায় সে রাতেই মামলা দায়েরের পর সোমবার পুরান ঢাকায় তার বাসায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ৩৮টি ওয়াকিটকি, বিদেশি মদও অস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব। ইরফানকে ১৮ মাস ও তার দেহরক্ষী মো. জাহিদকে ছয় মাস কারাদণ্ড দেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ওয়াইপি/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন