ফ্রান্সের পণ্য বর্জন অব্যাহত রাখার আহবান নোয়াখালীর শীর্ষ আলেমদের

প্রকাশিত: ২:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০২০

জমইয়্যাতুল মাদারিসিল ক্বাওমিয়্যাহ নোয়াখালী-লক্ষ্মীপুর, বাংলাদেশ-এর সভাপতি মাওলানা শফি উল্লাহ ও সেক্রেটারী জেনারেল হাফেজ মাওলানা আজীজুল্লাহ নওয়াব এক যৌথ বিবৃতিতে বলনে, ফ্রান্সের মন্টোপলসি ও ত্বলুস দুটি শহররে সরকারি ভবনে পুলিশী পাহারায় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব, মুসলমানদের হৃদয়ের স্পন্দন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গ চিত্র র্কাটুন প্রর্দশন করে ফ্রান্স বিশ্ব মুসলেিমর কলিজায় আঘাত করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মুসলমানরা বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিজেদের প্রাণের চেয়েও বেশি ভালোবাসেন। ফ্রান্সের বিতর্কিত কুখ্যাত রম্য পত্রকিা র্শালি হবেদোতে ২০১৫ সালেও এই র্কাটুন প্রকাশ করছেলি। তখন সারাবিশ্বের মুসলমান তীব্র প্রতবিাদ করেছলি। ফ্রান্সের ইসলাম বিদ্বেষী প্রসেডিন্টে ইনামুয়লে ম্যাক্রন জেনেশেুনে বিশ্ব সাম্প্রদায়কি সম্প্রীতি নষ্ট করার জন্য এমন গর্হিত কাজ করেছে যা বিকৃত মস্তিষ্কের অধিকারী লোক ছাড়া কারো পক্ষে সম্ভব নয়। তারা সেখানে অনেক মসজদি বন্ধ করে দিয়েছে, মুসলমানদের উপর নির্যাতন চালাচ্ছে।

আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতবিাদ জানানোর সাথে সাথে বাংলাদেশসহ মুসলিম বিশ্বকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সে ইসলাম ও মহানবী সা. এর অবমাননার বিরুদ্ধে প্রতিবাদলিপি প্রেরণের আহবান করছি। ইতোমধ্যেই প্রতিবাদ স্বরূপ বিভিন্ন রাষ্ট্রে ফ্রান্সের পণ্য বর্জন শুরু হয়ে গেছে এ র্বজন অব্যাহত রাখতে হবে এবং আরো তীব্রতর করতে হব।

বিশ্ব মুসলমিদের প্রতি আহবান, এসব ইসলাম বিদ্বেষী অপতৎপরতার বরিুদ্ধে সোচ্চার হয়ে প্রতিবাদ করার পাশাপাশি ইসলাম বিদ্বেষী, ষড়যন্ত্রকারী ও অপব্যাখ্যাকারীদের তকদীরে যদি হেদায়েত থাকে আল্লাহ তাআলা যেন তাদেরকে হেদায়েত দান করেন অন্যথায় আল্লাহ তাআলা যেন তাদেরকে উপযুক্ত শাস্তির মাধ্যমে ধ্বংস করে দেন, সে জন্য আমাদেরকে বিশেষ দোআ ব্যবস্থাও করতে হবে।

ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষী ষড়যন্ত্রকারী ও অপব্যাখ্যাকারীদেরকে সতর্ক হওয়ার, করোনা ভাইরাসের মতো আরো নিত্য-নতুন মহামারী ও আযাব-গজব আসার আগেই ষড়যন্ত্রমূলক ইসলাম বিদ্বেষী এসব গর্হিত কার্জকর্ম পরিত্যাগ করে ইসলামী অনুশাসন মেনে চলার আহবান জানান।

জাতীয় সংঘসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি অনতিবিলম্বে ফ্রান্সে রাসূল সা. এর অবমাননাকর কার্টুন প্রদর্শন বন্ধ করতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করার এবং ফ্রান্সরে মুসলমিদরে নিরাপত্তা ও মসজদিগুলোকে খুলে দিয়ে মুসলমানদরে নির্বিঘ্নে নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর দাবি জানান।

নাজমুল/

মন্তব্য করুন