প্রথম ছাত্রী হল উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ১৬তম বর্ষে পদার্পণ করলো জবি

প্রকাশিত: ১১:৪২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

জবি প্রতিনিধি: বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল উদ্বোধন ও ১৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের মধ্য দিয়ে ১৬তম বর্ষে পদার্পণ করলো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি)। বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার চত্বরে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় দিবস-২০২০ (১৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী) এর শুভ উদ্বোধন করেন অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান এবং ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ। এসময় বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, বিভাগের চেয়ারম্যান, রেজিস্ট্রার ও বিভিন্ন দপ্তরের পরিচালক, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের একমাত্র হল উদ্বোধন ও ভার্চ্যুয়াল প্লাটর্ফমে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিবসটি উদযাপিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ বলেন, “শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে জগন্নাথ-এর অতীত গৌরবময় ঐতিহ্য রয়েছে এবং এই ঐতিহ্যকে বেগবান রাখার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণার মান আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও দেশীয় সংস্কৃতি বিকাশে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত, নাট্যকলা, চারুকলা এবং ফিল্ম এন্ড টেলিভিশন বিভাগ আরো কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারবে।”

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, “করোনা মহামারীর কারণে শিক্ষার্থীদের জীবনের মূল্যবান সময় যাতে নষ্ট না হয় সেজন্য অনলাইন ক্লাস চালু রয়েছে। কিন্তু অনলাইন ক্লাস কখনই অন ক্যাম্পাসের বিকল্প হতে পারে না। ক্লাস সম্পন্ন করা হলেও পরীক্ষা নেয়া এখন সম্ভব হচ্ছে না। প্রটেক্টিভ এক্সাম সিস্টেম সফটওয়্যারের মাধ্যমে যেকোন পরীক্ষা নেয়া যাবে , এটা নিয়েও কাজ হচ্ছে । বর্তমান প্রযুক্তি সহায়তা নিয়ে আমাদের এগিয়ে যাওয়া ছাড়া উপায়ও নেই।”

আলোচনা সভায় রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ ওহিদুজ্জামান এর সঞ্চালনায় বিভিন্ন অনুষদের ডিনবৃন্দ, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ নূরে আলম আব্দুল্লাহ, কর্মকর্তার সমিতির সভাপতি বক্তব্য প্রদান করেন। আলোচনা শেষে ভার্চ্যুয়াল প্লাটফরমে সংগীত বিভাগের উদ্যোগে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে শিক্ষকদের পরিবহণের জন্য দুটি মাইক্রোবাস এবং পরিবহণ পুলের গাড়ি চালকদের ও হেলপারদের জন্য বিশ্রামাগার উদ্বোধন করা হয়। ভাষা শহীদ রফিক ভবনের নিচতলায় দিনব্যাপী সংক্ষিপ্তাকারে প্রকাশনা প্রদশর্নীর আয়োজিত হয় ।###

নাজমুল/

মন্তব্য করুন