বিতর্কিত শাসকরা পছন্দ করলেও ইসরাইলকে চরমভাবে ঘৃণা করে আরব জনগণ

প্রকাশিত: ২:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৪, ২০২০

দোহা এবং বৈরুত ভিত্তিক গবেষণা সংস্থা ‘আরব সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড পলিসি স্টাডিজ’ এর জরিপ অনুসারে ফিলিস্তিন ইস্যুতে সাধারণ আরব জনগণের আবেগের যে চিত্র ফুটে উঠেছে, তা ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক তৈরিতে ইচ্ছুক আরব নেতাদের মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।

ফলাফলে দেখা গেছে, ৮৯ শতাংশ আরব  জনগণই করেন যে ফিলিস্তিন ইস্যু বিচ্ছিন্ন কোনো ইস্যু নয়, বরঞ্চ এটি একটি আরব ইস্যু। এমনকি উপসাগরীয় দেশগুলোর জনগণের মধ্যেও এই মনোভাব এখনও খুবই জোরালো।

  • জরিপের ফলাফল অনুযায়ী, এখনও ৮৮ শতাংশ আরব ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিপক্ষে। মাত্র ছয় শতাংশ ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক সমর্থন করে।

কেন? – এ প্রশ্নে উত্তরদাতারা প্রধান কারণ হিসাবে ফিলিস্তিনীদের প্রতি ইসরাইলের ‘বর্ণবাদী আচরণ‘ এবং ফিলিস্তিনী ভূমি ‘জবর-দখল‘ করার কথা উল্লেখ করেছেন।

কোন দেশ আরবদের নিরাপত্তার জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি – এমন এক প্রশ্নের জবাবে ৬৬ শতাংশ উত্তরদাতাই ইসরাইল এবং যুক্তরাষ্ট্রের কথা বলেছেন।

অনেক বিশ্লেষক মনে করছেন, ইসরাইলের ব্যাপারে এই বৈরী জনমত বুঝেই হয়ত ইহুদি ওই রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন নিয়ে সৌদি শাসকরা দোটানায় পড়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সান ডিয়েগো বিশ্ববিদ্যালয়ের উপসাগরীয় রাজনীতির বিশেষজ্ঞ গিওর্গিও ক্যাফেইরো কিছুদিন আগে টুইট করেন: “অনির্বাচিত আরব শাসকদের সাথে ইসরাইলের সম্পর্ক স্বাভাবিক করা আর আরব জনগণের সাথে সম্পর্ক স্থাপন এক বিষয় নয়। ইসরাইল নিয়ে মিশরের জনগণের মনোভাবের দিকে তাকালেই তা বোঝা যায়।”

মন্তব্য করুন