ইসলামী আন্দোলনের ধর্ষণবিরোধী মানববন্ধনে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলা (ভিডিও)

প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০২০

জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান রুবেলের নেতৃত্বে রড, লোহাজাত অস্ত্র দিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শান্তি পূর্ণ মানববন্ধনে অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতারা। এতে ইসলামী আন্দোলন ও ছাত্র আন্দোলনের নেতাকর্মীরা গুরুতর আহত হন।

শান্তিপূর্ণ মানবন্ধনে হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছেন দলটির নেতারা কর্মীরা। এ হামলার বেশকিছু ছবিসহ একটি ভিডিও ক্লিপও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

হামলার সময় অপ্রস্তুত থাকায় মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী ইসলামী আন্দোলনের অন্তত ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন একজন কর্মী। আহতদেরকে স্থানীয় একটি হাসপালে ভর্তি করা হচ্ছে।

মাগুরা জেলা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর ধর্ষণবিরোধী প্রোগ্রামে জেলা ছাত্রলীগ , যুবলীগের সন্ত্রাসীদের সশস্ত্র হামলা !জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান রুবেলের নেতৃত্বে রড, লোহাজাত অস্ত্র দিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর শান্তি পূর্ণ মানববন্ধনে অতর্কিতে সন্ত্রাসী হামলা চালায় ক্ষমতাসীন দলের ক্যাডাররা। এতে ইসলামী আন্দোলন, ছাত্র আন্দোলনের ১৫ জন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হন । শান্তি পূর্ণ প্রোগ্রামে এমন নেক্কারজনক সন্ত্রাসী হামলার ধিক্কার ও প্রতিবাদ জানাই । ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এদেশে ভেসে আসা কোন সংগঠন না । ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এদেশের স্বাধীনতা ,সংবিধান, রীতি নীতি অনুযায়ী রাজনীতি করছে । আমরা শান্তি পূর্ণ ভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করি। শান্তি শৃঙ্খলায় বিশ্বাস করি ।কোনো ধরণের অরাজকতা সৃষ্টি করে দেশ, মানবতা ও মানুষের জান মালের নিরাপত্তা নস্যাৎ হোক এমন যেকোন কাজ ইসলামী আন্দোলন পরিহার করেই রাজপথে লড়াই সংগ্রাম করে থাকে ।আজকের মানববন্ধনটিও এর ব্যতিক্রম নয় । দেশের আপামর জনসাধারণ আজ ধর্ষণকে রুখে দিতে রাজপথে নেমে এসেছে। কিন্তু শান্তি পূর্ণ প্রোগ্রামে হামলা করে তারা ধর্ষকদের আড়াল করে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে চায় ।তাদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলব ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, ইশা ছাত্র আন্দোলনের শান্তি পূর্ণ মনোভাবকে ছোট করে দেখলে এটা হবে আপনাদের চিন্তার দৈন্যতা ।আমরা কোন ধরনের সহিংসতায় বিশ্বাসী নই । সহিংসতা দিয়ে রাজনীতি হয় না বরং গুন্ডামি হয়। তাই রাজনৈতিক সহাবস্থান নিশ্চিত করে সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে আসুন যার যার অবস্থান থেকে কাজ করি। ছাত্রলীগ যদি তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখেই চলে তাহলে দেশের সাধারণ ছাত্র জনতাকে সাথে নিয়ে এর দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে ইনশাআল্লাহ।

Posted by এস এম কামরুল ইসলাম on Sunday, October 11, 2020

আই.এ/

মন্তব্য করুন