রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে চুল কেটে ছাত্রী নির্যাতন, এলাকা তোলপাড়

প্রকাশিত: ৩:৪৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

নওগাঁর নিয়ামতপুরে রাস্তা থেকে এক স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে মাথার চুল কেটে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এরপর অভিযুক্ত রায়হান (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে জড়িত অন্যরা পলাতক রয়েছেন। তাদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিয়ামতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ূন কবির গণমাধ্যমকে জানান, প্রধান অভিযুক্ত রায়হান ওই ছাত্রীকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন।

প্রতিবাদ করায় সোমবার বিকেলে উপজেলার বালাতৈড় এলাকায় ওই শিক্ষার্থীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যান রায়হানসহ কয়েকজন বখাটে। এরপর রায়হানের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে তারা ছাত্রীর মাথার চুল কেটে নেয়।

এছাড়াও শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে মোবাইলে সেই ভিডিও ধারণ করা হয়। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় সেই ভিডিও।

ওসি আরও জানান, গ্রেফতারের পর রায়হান পুলিশের কাছে প্রাথমিকভাবে নির্যাতনের কথা স্বীকার করেছেন। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) রায়হানকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অন্য পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

ঘটনার পর শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে নিয়ামতপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্বজনরা। সেখানে ওই শিক্ষার্থীর চিকিৎসা চলছে।

আই.এ/

মন্তব্য করুন