সম্পর্কের তিক্ততায় ভারতীয় কূটনীতিককে ভিসা দিল না পাকিস্তান

প্রকাশিত: ৮:২১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের তিক্ততা বাড়িয়ে ভারতীয় কূটনীতিক জয়ন্ত খোবরাগাদেকে ভিসা দিতে অস্বীকার করেছে পাকিস্তান। ইসলামাবাদে ভারতীয় দূতাবাসের ভারপ্রাপ্ত অফিসার হিসেবে তাঁর নিয়োগে আপত্তি জানিয়েছে পাকিস্তান।

ইসলামাবাদে খোবরাগাদেকে নিয়োগের বিষয়ে সরকারি ঘোষণা হয়েছিল গত জুন মাসে। ঘটনাচক্রে সেই সময়ই ভারতে নিযুক্ত দুই পাক কূটনীতিকের বিরুদ্ধে চরবৃত্তির অভিযোগ ওঠে।

তাঁদের ফেরত পাঠানোর পাশাপাশি ভারতে পাক দূতবাসের কর্মী সংখ্যা অর্ধেক করতে ইসলামাবাদকে বলেছিল নয়াদিল্লি। ফলে সেই সময় থেকেই দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে ব্যাপক টানাপোড়েন চলছিল। খোবরাগাদের নিয়োগে ইসলামাবাদের আপত্তি তারই পাল্টা পদক্ষেপ বলে মনে করছে নয়াদিল্লি।

শুধু তাই নয়, কাশ্মীর ইস্যুতে আন্তর্জাতিক স্তরে তথ্যের লড়াইয়ে নিয়ম করে মুখ পুড়ছে পাকিস্তানের। ইমরান সরকারের এই সিদ্ধান্তের পিছনে সেই হতাশাও কাজ করছে।

ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে উচ্চ পর্যায়ের কোনও কূটনীতিকের নিয়োগে এইভাবে আপত্তি তোলার ঘটনা বিরল। নয়াদিল্লি মনে করে, কূটনীতিক নিয়োগের ক্ষেত্রে ভারতের সিদ্ধান্তে আপত্তি তোলার এক্তিয়ার পাকিস্তানের নেই।

ফলে পরবর্তী সময়ে পাকিস্তানকে তাদের দেখানো রাস্তাতে পাল্টা জবাব দেওয়ার কথাও ভাবা হচ্ছে বলে খবর। ১৯৯৫ ব্যাচের আইএফএস অফিসার খোবরাগাদে বর্তমানে পরমাণু শক্তি দপ্তরের যুগ্মসচিব হিসেবে কর্মরত।

এর আগে তিনি কিরঘিজস্তানে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব সামলেছেন। তার আগে রাশিয়া, স্পেন ও কাজাখস্তানে ভারতীয় দূতাবাসের জুনিয়র কূটনীতিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। অতীতে পাকিস্তানেও কাজ করেছেন তিনি। তবে তার সঙ্গে এবারের নিয়োগ খারিজের কোনও সম্পর্ক নেই বলেই মনে করছে নয়াদিল্লি।

গত বছর ভারত ও পাকিস্তান উভয়েই তাদের হাই কমিশনারকে দেশে ফিরিয়ে নিয়েছিল।

আই.এ/

মন্তব্য করুন