এরদোগানকে গালি দিয়ে বিপাকে গ্রিক মিডিয়া, ‘নির্লজ্জ কাজ আখ্যা’

প্রকাশিত: ৭:০০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানকে গালি দিয়ে শিরোনাম করায় গ্রিক সংবাদপত্র ডিমোক্রাটিয়ার বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছে তুর্কি সরকার। এ ব্যাপারে শক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য গ্রিস সরকারের প্রতিও আহ্বান জানানো হয়েছে। ঘটনাটির পর এরই মধ্যে গ্রিসের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সম্প্রতি এরদোগানকে গালি দিয়ে শিরোনাম করে গ্রিক পত্রিকা ডিমোক্রাটিয়া। এ ব্যাপারে ক্ষোভ জানিয়ে গ্রিক সরকারের মুখপাত্রের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের যোগাযোগ বিষয়ক পরিচালক ফাহরেতিন আলতুন।

তিনি বলেন, আমি তুর্কি সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের প্রেসিডেন্টকে অপমানকারী সে প্রকাশনা সংস্থার কঠোর নিন্দা জানাচ্ছি। কট্টর ডানপন্থি এ সংবাদপত্রটির প্রথম পাতার কাভারেজে আমাদের প্রেসিডেন্টকে অপমান করা হয়েছে। একে নির্লজ্জের কাজ আখ্যা দিয়ে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য গ্রিস সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আলতুন।

গত শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) গ্রিক সরকারের মুখপাত্র স্টেলিওস পেস্টাস চিঠিটি জনসমক্ষে প্রকাশ করেছেন। সম্প্রতি গ্রিস ও তুরস্কের মধ্যকার বিরোধ চরমে উঠেছে। গত ১০ আগস্ট গ্রিসের ক্রিট দ্বীপের পার্শ্ববর্তী ভূমধ্যসাগর এলাকায় গ্যাস অনুসন্ধানের জন্য জরিপ কাজে জাহাজ মোতায়েন করে তুরস্ক। জবাবে ইউরোপীয় মিত্র ও আরব আমিরাতের সহযোগিতায় ভূমধ্যসাগরের এ অঞ্চলটিতে নৌ-মহড়ার আয়োজন করে গ্রিস। ফলে দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা বাড়তে থাকে।

জাহাজটি ভূমধ্যসাগরে গ্রিসের মালিকানাধীন বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে জরিপকাজ চালাচ্ছিল বলে দাবি করে গ্রিস। এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে তুরস্ক জানায়, জাহাজটি যে অঞ্চলে অনুসন্ধান চালাচ্ছিল সেটি তাদেরই মালিকানাধীন এলাকা। গত সপ্তাহে আঙ্কারা জাহাজটি সরিয়ে নেয়। দাবি করা হয়, রুটিন মেনটেনেন্সের অংশ হিসেবে এর চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। পরে তুরস্কের পক্ষ থেকে বলা হয়, গ্রিসের সঙ্গে উত্তেজনা কমাতে কূটনৈতিক পথ খোলা রেখেছে তারা।

আই.এ/

মন্তব্য করুন