বিমান হামলায় ৪০ মুজাহিদ নিহত, তালেবান নেতার অস্বীকৃতি

প্রকাশিত: ৩:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০

আফগানিস্তানের কুন্দুজ প্রদেশে আফগান বাহিনীর চালানো ভয়াবহ বিমান হামলায় অন্তত ৪০ তালেবান যোদ্ধার প্রাণহানি ঘটেছে। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন সংগঠনটির আরও কিছু সদস্য। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে আনা যুদ্ধবিমানগুলো দিয়ে আক্রমণটি চালানো হয় বলে জানিয়েছে আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। খবর স্কাই নিউজ, আল জাজিরা

কুন্দুজ প্রাদেশিক সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, একাধিক বিমান হামলায় কমপক্ষে ১১ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। যাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ দিকে তালেবান নেতাদের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে বলা হয়, বিমান হামলায় কমপক্ষে ৪০ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। তবে এবার নিজেদের কোনো সদস্য হতাহত হয়েছেন কিনা সে বিষয়ে উল্লেখ করেনি সশস্ত্র সংগঠনটি।

অপর দিকে বিমান হামলায় কোনো বেসামরিক নাগরিক হতাহতের খবর নিশ্চিত করেনি আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। যদিও বেসামরিক নাগরিক হতাহতের বিষয়টি নিয়ে আফগান সরকারের পক্ষ থেকে তদন্ত চলছে বলে জানা গেছে। কুন্দুজ প্রদেশের এক সংসদ সদস্য বলেন, প্রথম বিমান হামলাটি তালেবানদের ঘাঁটিতে চালানো হয় কিন্তু পরে বেসামরিক নাগরিকরা ওই হামলার স্থানে জড়ো হওয়ার চালানো হয়।

পাল্টাপাল্টি হামলার পর সাধারণ মানুষের সুরক্ষার্থে মানবিক যুদ্ধবিরতির ডাক দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডন্ট আশরাফ ঘানি। এর আগেও আফগান সরকারের পক্ষ থেকে তালেবানদের উদ্দেশে এমন যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো হয়েছে। যদিও সশস্ত্র গোষ্ঠীটির পক্ষ থেকে তা মেনে নেওয়া হয়নি। আফগানিস্তানের দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধে অবসানে সরকার এবং যুক্তরাষ্ট্র তালেবানের সঙ্গে যখন শান্তি চালিয়ে যাচ্ছে তখনই হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে। এতে আবারও হুমকিতে পড়েছে শান্তি আলোচনা।

আই.এ/

মন্তব্য করুন