ভারতের বিকল্প মিয়ানমার, মিশর ও তুরস্ক থেকে পেঁয়াজ আনা হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৮:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

আগামী এক মাসের মধ্যে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, শিগগিরই ভারতের বিকল্প অন্য কোনও দেশ যেমন- মিয়ানমার, মিশর ও তুরস্ক থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হবে। সে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও পেঁয়াজের ওপর আরোপিত ৫ শতাংশ শুল্ক ২০২১ সাল পর্যন্ত প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী

তিনি বলেন, ভারত সরকারের পেঁয়াজ রফতানি না করার সিদ্ধান্তের সুযোগ নিয়েছে দেশের এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী। বছরে দেশে পেঁয়াজের ঘাটতি রয়েছে চার লাখ টন। তবে এ মুহূর্তে পেঁয়াজের কোথাও কোনও সংকট নাই। তাই পেঁয়াজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত পেঁয়াজের মূল্য নিয়ে সৃষ্ট অস্থিরতা বিষয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ আহ্বান জানান। এ সময় বাণিজ্য সচিব ড. জাফর উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর বিকালে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। তবে এদিন বাংলাদেশ থেকে ভারতে ইলিশ রপ্তানি হয়েছে ১২ মেট্রিকটন। পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করায় বেনাপোলের ওপারে পেট্রাপোলে আটকা পড়েছে পেঁয়াজভর্তি প্রায় ১৫০টি ট্রাক। একই অবস্থা অন্য স্থলবন্দরেও। ভারতের শুল্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সোমবার কিছু নীতিগত পরিবর্তন হওয়ার কারণে পেঁয়াজের রপ্তানি বন্ধ করা হয়েছে।

আই.এ/

মন্তব্য করুন