শেষ হলো চবির ম্যানেজমেন্ট কমিউনিকেশন ক্লাবের কেসফোগ্রাফিক চ্যালেঞ্জ ২০২০

প্রকাশিত: ৭:৪৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ম্যানেজমেন্ট কমিউনিকেশন ক্লাবের আয়োজনে ‘এমসিসি ন্যাশনাল কেসফোগ্রাফিক চ্যালেঞ্জ ২০২০’ প্রতিযোগিতাটি শেষ হয়েছে। ফাইনাল রাউন্ডে চ্যাম্পিয়ন হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম ব্লাইন্ড চ্যাম্প। এছাড়াও ফার্স্ট রানারআপ হয় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালস, নর্থ সাউথ এবং ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির টিম জিরো টু ওয়ান এবং সেকেন্ড রানারআপ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম টাস্ক ফোর্স ১৪১। গত শনিবার অনলাইনে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

জানা যায়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট কমিউনিকেশন ক্লাবের উদ্যোগে প্রতিযোগিতাটির জন্য গত ১৯ শে জুলাই অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন শুরু হয়ে ১১ আগস্ট রেজিষ্ট্রেশন শেষ হয়। এতে দেশের সরকারী- বেসরকারী স্বনামধন্য ১৫টিরও বেশি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৭৫টি দল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন রেজিষ্ট্রেশন করেন। ১৭৫টি দল থেকে ২৬টি বাছাইকৃত দল তাদের দক্ষতা প্রর্দশনের মাধ্যমে নক আউট রাউন্ডে কোয়ালিফাই করে সমাধানকৃত বিজনেস কেসগুলো ইনফোগ্রাফিকের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন। পরে চূড়ান্ত পর্যায়ে ৭টি দল তাদের সৃজনশীল এবং অনন্য ইনফোগ্রাফিক উপস্থাপনের মাধ্যমে ফাইনাল রাউন্ডে উঠার সুযোগ পান।

প্রতিযোগিতার বিষয়ে ম্যানেজমেন্ট কমিউনিকেশন ক্লাবের সহ সভাপতি অর্পিতা ব্যানার্জী বলেন, “প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের ৪৫ হাজার টাকার প্রাইজমানি এবং অন্যান্য অনলাইন সুযোগ সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে পুরষ্কৃত করা হবে। বিজনেস কেস এবং ইনফোগ্রাফিকের সমন্বয়ে এ ধরনের ভিন্নধর্মী প্রতিযোগিতা এই প্রথমবারের মত বাংলাদেশে আয়োজিত হয়েছে। মূলত শিক্ষার্থীদের করোনাকালীন এই গৃহবন্দী সময়কে কার্যক্ষম করে তোলার উদ্দেশ্যেই এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।’’

চূড়ান্ত পর্বের অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন চবি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের অধ্যাপক ও ক্লাবের মডারেটর আবু মোহাম্মদ আতিকুর রহমান। এতে একই বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. সাহিদুর রহমান ও ক্লাবের এসিস্ট্যান্ট মডারেটর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হারিসুর রহমান হাওলাদারসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে ছিলেন ‘দেশবন্ধু ফুড এন্ড বেভারেজ লিমিটেডের এক্সপোর্ট ম্যানেজার মো. রুবেল খান, গ্রামীণফোন লিমিটডের,সিনিয়র ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিলেশন্স এক্সপার্ট মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান, স্মার্টিফায়ার একাডেমির সিইও মোহাম্মদ সোহান হায়দার, নেসলে বাংলাদেশ লিমিটেডের টেরিটোরি অফিসার মোহাম্মদ আসিফ সিদ্দিকী, ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের এম্পলয়ার এন্ড এইচ আর স্ট্রাটেজি ম্যানাজার প্রমিতি সালেহ ও একই প্রতিষ্ঠানের এইচ আর এম্পলয়ার ব্র্যান্ড এক্সিকিউটিভ সামিহা সানজানা’। উক্ত আয়োজনে স্পন্সর হিসেবে ছিলো হাইবালি ওয়াটার ট্যাপ্স লিমিটেড ও এবং কো-স্পন্সর “ডেল্টা ইমিগ্রেশন”।

পুরো আয়োজনের মিডিয়া পার্টনার ছিলো দৈনিক কালের কন্ঠ, দৈনিক র্পূবকোণ, রেডিও টুডে ৮৯.৬ এফএম, কভারজে র্পাটনার দ্যা ফাইনানশয়িাল এক্সপ্রসে। স্ট্রাটজেকি র্পাটনার বাংলাদশে ইয়ুথ লডিারশীপ সন্টোর, আউটরীচ পার্টনার ইয়ুথ অপরচিউনটি, নলেজ পার্টনার স্মার্টটিফাইয়ার একাডেমি, সাপোর্টিং পার্টনার স্টার্টআপ চট্টগ্রাম, ই-লার্নিং পার্টনার বহুব্রীহি এবং গিফট পার্টনার খাস ফুড। এছাড়া দেশের স্বনামধন্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ভিত্তিক ক্লাব উক্ত প্রতিযোগিতায় সাপোর্টিং ক্লাব পার্টনার হিসেবে ছিলো। ###

এনএইচ/

মন্তব্য করুন