এদেশের রাজনীতিতে খুন-হত্যা শুরু করেছে জিয়া পরিবার: কাদের

প্রকাশিত: ৫:২১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এ দেশের রাজনীতিতে খুন, হত্যা, ষড়যন্ত্রের জনক জিয়া পরিবার। বুধবার মন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে বরিশাল সড়ক জোন, বিআরটিএ ও বিআরটিসি কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেছেন, জেনারেল জিয়াকে না কি ছোট করা হচ্ছে। আমি তার কাছে জানতে চাই, বঙ্গবন্ধু হত্যার পর মোশতাক সরকারের প্রধান সেনাপতি কে হয়েছিলেন? বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা সাক্ষাৎকারে বলেছেন, বঙ্গভবনের একটি কক্ষে জিয়ার সাথে খুনিদের কথা হতো, দেখা হতো। খুনিদের বিভিন্ন দূতাবাসে কে চাকরি দিয়েছিল? হত্যার বিচার বন্ধে মোশতাক সরকারের ইনডেমিনিটি অর্ডিন্যান্স ৫ম সংশোধনীর মাধ্যমে কে সংবিধানে ঢুকিয়েছিল? সত্য কথা বললে ছোট করা হয়?

তিনি বলেন, খুনি আর খুনের মদদদাতা, প্রশ্রয়দাতা এবং বেনিফিশিয়ারও সমান অপরাধী। শুধু জিয়াই নয়, মুফতি হান্নানের সাক্ষ্যে উঠে এসেছে ২১ আগস্টের মাস্টার মাইন্ড হাওয়া ভবনের যুবরাজ তারেক জিয়া। এদেশের রাজনীতিতে খুন, হত্যা, ষড়যন্ত্রের জনক জিয়া পরিবার। খুনিদের খুনিই তো বলবে জনগণ। সত্য কথা শুনতে আপনাদের এত গাত্রদাহ কেন?

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, স্বাধীনতার ঘোষণার পাঠক স্বাধীনতার ঘোষক হতে পারে না। জিয়া ইতিহাসের ফুটনোট মাত্র। ফুটনোট কখনো ইতিহাসের নায়ক হতে পারে না। ১৫ আগস্ট এবং ২১ আগস্টের মাস্টার মাইন্ড বিএনপি। একুশে আগস্টের রক্তস্রোত এবং হত্যাকাণ্ডকে অন্য দিকে ঘুরাতে জজ মিয়া নাটক আপনারাই সাজিয়েছেন। আলামত নষ্ট করে ধামাচাপা দিতে চেয়েছেন। ইতিহাস বিকৃত করে নতুন প্রজন্মকে ভুল ইতিহাস শেখাতে চেয়েছেন। পাঠ্যপুস্তক থেকে পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুকে নির্বাসনে দিয়েছেন। পাবলিক মিডিয়ায় বঙ্গবন্ধু হারিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু ইতিহাস চলে নিজস্ব গতিতে। অপরাধীদের এক সময় ইতিহাসের কাঠগড়ায় দাঁড়াতেই হয়। ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সত্য এই যে, ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না।

মন্তব্য করুন