বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবার জাদুঘরে: রিজভী

প্রকাশিত: ৫:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০২০

বালাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে একটা শ্বাসরুদ্ধকর ভয়ংকর দু:সময় বলে অভিহিত করেছে বিরোধী দল বিএনপি।

আজ (শনিবার) নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আশু আরোগ্য ও দীর্ঘায়ু কামানায় আয়োজিত দোয়া-মাহফিলে এমন অভিযোগ করেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

এ সময় রিজভী বলেন, আমরা এমন একটা সময়ে বসবাস করছি, যে সময়টাতে নাগরিকদের নেই কোনো বাক স্বাধীনতা। মত প্রকাশের স্বাধীনতা বাংলাদেশে একেবারে জাদুঘরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। যদি কেউ কোথাও কোনো মন্তব্য করেন, ফেইসবুকে কিছু শেয়ার করেন, আইন শৃঙ্খলা বাহিনী রাতে তাকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। এরপর তার কপালে জুটবে একটা মিথ্যা মামলায় কারাগার, অথবা গুম অথবা বিচারবর্হিভুত হত্যার শিকার হওয়া। কে কখন এই সরকারের নির্যাতনের শিকার হবে মানুষ সবসময় সে আতঙ্কে থাকেন। বাংলাদেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার র এই হচ্ছে অবস্থা।

বিএনপিকে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের দেয়া এক বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী প্রশ্ন করেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি, ব্যাংকের কোটি কোটি টাকা লুট, পদ্মা সেতুর দুর্নীতি, হলমার্ক দুর্নীতি, ক্যাসিনো, পাপিয়া, ভুয়া করোনা টেস্ট, রিসেন্ট-জেকেজি দুর্নীতি, ত্রাণের চাল-তেল-নগদ টাকা আত্মসাত -এসব কি বিএনপি করেছে। সরকারি দলের নেতাকে উদ্দ্যশ্য করে রিজভী বলেন, আপনারা বড় বড় কথা বলছেন? আয়নার সামনে দাঁড়ান। নিজেদের চেহারাটা দেখুন। জনগণ দেখছেন, একটা সরকার জোর করে একযুগ ধরে ক্ষমতায় থেকে কিভাবে জনগণের টাকা লুট করেছে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে একটা মিথ্যা মামলায় তাকে সাজা দেয়া হলো শুধু প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য। সেখানে তার স্বাক্ষর নাই,তার কোনো ধরনের কোনো সম্পর্ক নাই। গণতন্ত্রের জন্যে বার বার নিজের জীবনকে বিপন্ন করেছেন। তিনি কারাগারের বাইরে কিন্তু সম্পূর্ণভাবে মুক্ত নন।

দোয়া মাহফিলে মোনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয়তাবাদী উলামা দলের সদস্য সচিব মাওলানা নজরুল ইসলাম তালুকদার।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন