বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে আল্লামা কাসেমীর আহ্বান

প্রকাশিত: ৪:২৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০২০

দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুড়ে বন্যাদূর্গত অঞ্চলের দুর্দশাগ্রস্ত অসহায় মানুষের পাশে যার যার সাধ্যমত সহযোগিতা নিয়ে দাঁড়ানোর জন্য দলীয় নেতাকর্মীসহ সক্ষম সর্বস্তরের জনতার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী।

আজ (২১ জুলাই) মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জমিয়ত মহাসচিব বলেন, ইসলাম সাম্য, সহমর্মিতা, মানবতা ও ইনসাফের শিক্ষা দেয়। ইসলাম মনবিকতাবোধের জায়গায় ধর্ম, বর্ণ ও ভাষাগত কোন তারতম্য করে না। সুতরাং দল-মতের ঊর্ধ্বে সকল মানুষকে সমান বিবেচনা করে অসহায় আর্তমানবতার পাশে সহযোগিতা নিয়ে স্বচ্ছল জনসাধারণকে দাঁড়ানো নৈতিক দায়িত্ব। ব্যক্তিগত বা সম্মিলিত উদ্যোগে যার যার এলাকায় ত্রাণসামগ্রী, নগদ অর্থ ও খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহ করে দূর্গত ও বিপর্যস্ত মানুষের মাঝে বিলি-বণ্টনের উদ্যোগ নিন। জমিয়তের নেতা-কর্মীরা নিজেরাও ত্রাণ ও সেবা কাজে শরীক হোন এবং অন্যদেরকেও উদ্বুদ্ধ করুন।
আল্লামা কাসেমী বলেন, ইতিমধ্যেই পত্রপত্রিকায় বন্যা দুর্গত এলাকার যেসব চিত্র ও খবর আসছে তাতে জানা যাচ্ছে, টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে দেশের বিভিন্ন জেলার বন্যা পরিস্থিতি আরো খারাপ হচ্ছে। বাড়ি-ঘর তলিয়ে যাওয়ায় বাঁধ ও পাকা রাস্তাসহ বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় নেওয়া লোকজন বিশুদ্ধ পানি, খাদ্য ও শৌচাগারের অভাবে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বন্যা কবলিত এলাকার সব উঁচু বাঁধ, পাকা সড়ক ও বিভিন্ন উঁচু প্রতিষ্ঠানে বানভাসি পরিবারগুলো তাদের গবাদিপশু নিয়ে বাস করছে। চাহিদা মতো ত্রাণ পাচ্ছেন না তারা। এসব এলাকার মানুষ যে অত্যন্ত করুণ ও মানবেতর পরিস্থিতির মুখে পড়েছে, সহজেই বুঝা যায়। উপদ্রুত অনেক এলাকায় তীব্র খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। সরকারের তরফ থেকে উল্লেখযোগ্য ত্রাণ তৎপরতা দেখা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক সংগঠন, সেবা সংস্থা এবং অন্যান্যরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে ত্রাণ সংগ্রহ করে দুর্গত মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়াতে হবে। মানবতাবোধ ও মানুষের পাশে দাঁড়ানোই এই সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভাবনা হওয়া চাই। নগদ অর্থ, খাদ্য, বস্ত্র, পানি, ওষুধ, যার যা কিছু আছে, তা নিয়েই স্বতঃস্ফূর্তভাবে বন্যাদুর্গতদের সাহায্যে এগিয়ে আসার এখনই সময়। আমি জমিয়তের সকল নেতাকর্মীর প্রতি যার যার অবস্থান থেকে সাধ্যমতো মানবিক সহায়তায় শরীক হতে উদাত্ত্ব আহ্বান জানাচ্ছি।

ফের অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আল্লামা শফী

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি ও চট্টগ্রাম দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী ফের অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

আজ দুপুর আনুমানিক ২ টার দিকে তাঁর শারিরিক অসুস্থতা বেড়ে গেলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিষয়টি পাবলিক ভয়েসকে নিশ্চিত করেছেন হেফাজতের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী। এছাড়াও বিষয়টি ফেসবুকে নিশ্চিত করেছেন হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মুফতী ফয়জুল্লাহ।

তিনি লিখেছেন – হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সম্মানিত আমীর ও দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার মান্যবর মুহতামিম, শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী দা.বা. (আল্লাহ শিফায়ে কামিলা-‘আজিলা দান করুন)কিছুটা অসুস্থ।

শারীরিক দুর্বলতা ও বিভিন্ন শারিরীক জটিলতার কারণে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শায়খুল ইসলাম সাহেব দা.বা. এর দ্রুত সুস্থতার জন্য মহান আল্লাহ শাফী’র শাহী দরবারে কায়মনোবাক্যে দোয়া করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।

মন্তব্য করুন