২ ভোট পেয়ে জিতে গেলেও দায় আমাদের নয়: ইসি সচিব

প্রকাশিত: ৪:৫৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০২০

করোনাভাইরাসের সর্বোচ্চ প্রকোপের মধ্যেই আরেকটি নির্বাচন করতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। ১৪ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে বগুড়া-৬ ও যশোর-১ আসনের উপনির্বাচন। দেশে করোনার সংক্রমণ যখন শুরু হয়েছিল, তখন ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচন করে সমালোচনার মুখে পড়েছিল কমিশন। আবারও সেই পথে হাঁটছে তারা। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, করোনার কারণে কেউ ২ ভোট পেলেও তার দায় আমাদের নয়।

মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, আমাদের সামনে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাই মহামারির প্রকোপের মধ্যেও নির্বাচন করতে হবে। কারোনার কারণে হয়তো মানুষ ভোট কেন্দ্রে যাবে না, সেই আশঙ্কার কথা স্বীকার করে নিয়ে তিনি বলেন, একজন যদি ২ ভোট পায়, আর অপরজন যদি ১ ভোট পায়, তাহলে নিয়মানুযায়ী ২ ভোট পাওয়া প্রার্থী জিতে যাবে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। নির্বাচন হবে সময়ের মধ্যেই।

তিনি আরো বলেন, নির্ধারিত ৯০ দিনের পর প্রধান নির্বাচন কমিশন তার ক্ষমতাবলে নির্বাচনকে আরো ৯০ দিন পিছিয়ে দিতে পারেন। তারপর নির্বাচন পেছানোর এখতিয়ার থাকে রাষ্ট্রপতি এবং আদালতের হাতে। এ নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশন। রাষ্ট্রপতি আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে একটা প্রস্তাব দিতে বলেছেন। সেটা দেওয়ার পর বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হলেও এখনো কোনো সিদ্ধান্ত পাওয়া যায়নি।

তবে বিষয়টাকে ‘অযুহাত’ হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা। নির্বাচন বিশেষজ্ঞ ড. তোফায়েল আহমেদ বলেন, শেষ পর্যন্ত নির্বাচনের ভালো-মন্দের সব দায় নির্বাচন কমিশনের। তাই সিদ্ধান্ত তাদেরকেই নিতে হবে, রাষ্ট্রপতিকে নয়। রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে সিদ্ধান্ত না পেলে তারা আদালতের দারস্থ হতে পারে। রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্ত জানার জন্য যথাযথ জায়গায় খবর নিতে পারে। কিন্তু সেসব না করে কোনো উপায় নেই বলে দেওয়াটা ‘অযুহাত’ মাত্র।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন