ইকরামুল মুসলিমীনের নাম পরিবর্তন, এখন থেকে ‘ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন’

ইকরামুল উম্মাহ

প্রকাশিত: ৬:০২ অপরাহ্ণ, জুলাই ৫, ২০২০

করোনাকালীন সময়ে শুরু থেকে ধারাবাহিকভাবে সারাদেশব্যাপী জনসেবামূলক কাজ করে ব্যাপক প্রশংসা কুড়ানো সামাজিক সেবামূলক সংগঠন “ইকরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন”র নাম পরিবর্তন করে “ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন” করা হয়েছে।

জানা গেছে, সরকারি রেজিস্ট্রেশন এবং আইনগত কিছু বিষয়ের কারণে “ইকরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন” এর নাম পরিবর্তন করে “ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন” রাখা হয়েছে। একই সাথে সংক্ষিপ্ত নাম ‘ইউফা’ ও পূর্বের লোগো পরিবর্তন করে নতুন লোগো উন্মোচন করা হয়েছে।

[ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন এর নতুন লোগো। আগে যা ইকরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন নামে ছিল।]

এ বিষয়ে ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন-এর চেয়ারম্যান মুফতী হাবিবুর রহমান মিছবাহ এবং ফাউন্ডেশন-এর মহাসচিব মুফতী মুহিব্বুল্লাহ যৌথ বিবৃতিতে বলেন, করোনাকালীন সময়ে ধারাবাহিকভাবে সামাজিক সেবামূলক কাজ করা ইকরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন সরকারিভাবে নথিভূক্ত হওয়ার জন্য আবেদন করলে সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে জানানো হয় একই নামে ২০০০ সালের রেজিস্ট্রেশনভুক্ত একটি সংগঠন রয়েছে। যদিও তাদের কার্যক্রম চলমান নেই। কিন্তু সংগঠনটি রেজিস্ট্রেশন থাকায় এ নামে নতুন কোনো সংগঠন রেজিস্ট্রেশন হওয়া সম্ভব নয়। তাই সংগঠনের দায়িত্বশীলরা একাধিক পরামর্শমূলক বৈঠকের মাধ্যমে নতুন করে সংগঠনের নাম “ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন” রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। তবে নাম পরিবর্তন হলেও দেশব্যাপী আমাদের কাজ চলমান থাকবে। বিবৃতিতে সবার দোয়া ও সহযোগিতাও কামনা করেন তারা।

এ বিষয়ে বিস্তারিত আলাপে ফাউন্ডেশনের প্রচার সচিব এহসান সিরাজ বলেন, আমরা দীর্ঘ আলোচনার মাধ্যমে এ সংগঠনের নাম ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন রেখেছি এবং খুব শীঘ্রই এটি সরকারের নথিভূক্ত হয়ে জনসেবামূলক অলাভজনক একটি সংগঠন হিসেবে আরও বড় পরিসরে আত্মপ্রকাশ করবে।

 

[ইকরামুল মুসলিমিন ফাউন্ডেশন এর লোগো]

প্রসঙ্গত : বাংলাদেশে করোনাভাইরাস মহামারির শুরু থেকেই ঢাকা-সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অসহায় এবং দরিদ্র মানুষদের মাঝে নগদ টাকা, জরুরি খাদ্যসাসগ্রি, রমযান ও ঈদে একাধিক প্যাকেজ এবং জরুরি ওষুধ বিতরণ করেছে। এছাড়াও সারাদেশে করোনায় মৃতের জানাযা দাফনের জন্য প্রতিটি জেলায় জেলায় স্বেচ্ছাসেবী টিম গঠন করা হয়েছে। যাদের মাধ্যমে এ পর্যন্ত প্রায় শতাধিক জানাজা ও দাফনের কাজ সম্পন্ন করেছেন তারা। ঘূর্ণিঝড় আম্পান কবলিত সাতক্ষীরা অঞ্চলসহ উপকূলীয় অঞ্চল পটুয়াখালীর কুয়াকাটা এবং ভোলার চরফ্যাশন অঞ্চলে একাধিকবার সহায়তামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেছে ইকরামুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন (সাবেক ইকরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন)। বর্তমানেও সংগঠনের কেন্দ্রীয় টিম বন্যাকবলিত উত্তরাঞ্চলের কুড়িগ্রাম অঞ্চলে অবস্থান করছেন।

#আরআর/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন