শিথিল করা হলো চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত: ১০:২৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১, ২০২০

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে দীর্ঘ ছুটির পর গত এক মাস ধরে সীমিত পরিসরে চলছে অফিস। সে সময় গামী ৩ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া পরিবর্তিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দোকান-পাট ও শপিংমল খোলা রাখার সময় বৃদ্ধি এবং চলাফেরার ক্ষেত্রে আরোপিত নিষেধাজ্ঞাও কিছুটা শিথিল করা হয়েছে।

এ ছাড়া সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১ জুলাই থেকে ৩ আগস্ট পর্যন্ত সকাল ১০টা থেকে রাত ৭টা পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখা যাবে।

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ মোকাবিলায় নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বৃদ্ধি করেছে সরকার। বর্তমান সময়ের মতো স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামীকাল বুধবার (১ জুলাই) থেকে ৩ আগস্ট পর্যন্ত সীমিত পরিসরে অফিস চালু থাকবে, চলবে গণপরিবহনও।

মঙ্গলবার রাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এতে বলা হয়, ১ জুলাই থেকে রাত ১০টার পর থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত অতীব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে যাওয়া যাবে না। এর আগে এই নিষেধাজ্ঞা ছিল রাত ৮টার পর থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত।

অতীব জরুরি প্রয়োজন হিসেবে প্রয়োজনীয় ক্রয়-বিক্রয়, কর্মস্থলে যাতায়াত, ওষুধ ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ইত্যাদির কথা বলা হয়েছে।

তবে ঘরের বাইরে যাওয়ার ক্ষেত্রে মাস্ক পরিধান করা, পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখা ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। অন্যথায় নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

পরিবর্তিত সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১ জুলাই থেকে ৩ আগস্ট পর্যন্ত দোকান-পাট, শপিংমলগুলো সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। এতদিন বিকেল ৪টা পর্যন্ত এসব প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার বাধ্যবাধকতা ছিল।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনারোগী শনাক্ত হয়। এর পর তা আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে সংক্রমণ প্রতিরোধে ২৬ মার্চ থেকে থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। কয়েক দফায় ৬৬ দিনের ছুটি শেষে গত ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে সব কিছু খুলে দেওয়া হয়। ৩০ জুন পর্যন্ত প্রথম দফার সিদ্ধান্ত শেষ হওয়ায় মঙ্গলবার তা আবারো বাড়ানো হলো। তবে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখন পর্যন্ত এই সিদ্ধান্তের বাইরে রয়েছে।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন