বারবার নাটকই দরকার আমাদের !

প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০
  • এভাবে অনিয়ম এবং খামখেয়ালিপনার সাথে লঞ্চ চালিয়ে ৩৩ জন মানুষকে মেরে ফেলার ঘটনা কেন ঘটলো?
  • বুড়িগঙ্গার মত ব্যস্ততম এবং ঢাকায় অবস্থিত একটি নদীতে ডুবে যাওয়া লঞ্চ উদ্ধারে এত সময় কেন লাগলো?
  • উদ্ধারকারী জাহাজ কেন খামখেয়ালিপনার সাথে চালিয়ে এসে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বুড়িগঙ্গা ব্রিজে ফাটল ধরিয়ে দিলো?
  • উদ্ধারকার্যে কেন সেই মান্ধাত্বা আমলের পাইপ দিয়ে অক্সিজেন ব্যবহার করা হয়েছে। যেখানে প্রযুক্তির উৎকর্ষের বিশাল বিশাল দাবি আমাদের।
  • লঞ্চ, বাস, ট্রাক সবকিছুর চলাচলে এত অনিয়ম কেন সারাদেশে?

এই ধরণের ডজন ডজন প্রশ্ন রেখে আপনি পড়লেন কিসের পিছে? … একজন ১৩ ঘন্টা পরে জীবিত উদ্ধার হইলো নাকি এটা নাটক ছিলো? এই হলো আমাদের অবস্থা!

মূল পয়েন্ট নিয়ে কোন কথাই নেই এখন। এমনকি যে ৩৩ জন মানুষ মরে গেলো তাদের নিয়েও কোন টু-শব্দও নেই যেন। যদি এমনই চলতে থাকে তাহলে বাস্তবেই যদি সুমন ব্যাপারীর উদ্ধারটা নাটক হয়ে থাকে তবে এটি সফল এবং এমন নাটক সব সময়ই হতে থাকবে। যে কোন দুর্ঘটনার পরই এমন একটি নাটক হবে। কারণ নাটকটাই আপনাকে/আমাকে ব্যস্ত রাখার বড় মাধ্যম এখন। আমরা মূল বিষয় রেখে নাটকের পেছনেই পরে থাকবো। এজন্যই আসলে জাতীগত ভাবে আমরা আরও মাটির নিচে দেবে যাচ্ছি দিন দিন।

আপনি কেন এবং কিসের ভিত্তিতে সুমন ব্যাপারীর উদ্ধার নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন বা উৎসাহ দেখান। ধরেন সে বাস্তবেই বেঁচে ফিরলো তাতে সমস্যা কী? আবার বিষয়টি নাটক এটাও বা কেন বলতে হবে আপনাকে? নাটক হলেও এটাতে কেন আগ্রহী হবেন আপনি ৩৩ জনের মৃত্যু প্রতিবাদ বাদ রেখে। তাছাড়া এভাবে বেঁচে ফেরার ঘটনা কী নাই বিশ্বে আর!

জাহাজ ডুবে যাওয়ার দীর্ঘ সময় পর অনেকের বেঁচে ফেরার ঘটনা নতুন নয়। বিভিন্ন উপায়েই আল্লাহ তায়ালা মানুষকে বাঁচিয়ে দেন। এমন অনেক প্রমান দেওয়া যাবে যে – জাহাজ ডুবির ১০ ঘন্টা, ২০ ঘন্টা পরও অনেককে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। কেবল বাংলাদেশেই নয় অনেক দেশেই এমন ঘটনা রয়েছে যে জাহাজডুবির ৩০ ঘন্টা পরও কাউকে জীবিত অবস্থায় পানির নিচেই পাওয়া গেছে।

এর আগে ২০১৭ সালেও বাংলাদেশে নদীর নিচ থেকে ২৮ ঘন্টা পর সোহাগ হাওলাদার (৩৫) নামের একজন জীবিত উদ্ধার হয়েছেন। নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে ডুবে যাওয়া বালুবাহী বাল্কহেডের ভেতর থেকে তিনি বেঁচে ফিরেন। তিনি ছিলেন ওই বালুবাহী জাহাজের ইঞ্জিন সহকারী। বাল্কহেডের ইঞ্জিন রুমে পানি প্রবেশ না করায় এবং রুমে অক্সিজেন থাকায় তিনি বেঁচে গেছেন।

২৮ ঘন্টা পর পানির নিচ থেকে বেঁচে ফেরা সোহাগ হাওলাদার (বায়ে)

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিএনএন জানায়, ২০১৩ সালে নাইজেরিয়ার একটি কোম্পানি ওয়েস্ট আফ্রিকান ভেঞ্চারস এর একটি লাইটার ভ্যাসেল সমুদ্রে ডুবে যায়। পরে ডুবে যাওয়া ভেসেলে একটি এয়ার পকেট তৈরি হয়। তাতে ওই ভ্যাসেলে থাকা হ্যারিসন ওকেন নামে এক ব্যক্তি তিন দিন অবস্থান করছিলেন। অর্থাৎ ডুবে যাওয়ার তিনদিন পর ভ্যাসেল থেকে তাকে জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছিল শুধুমাত্র এয়ারপকেট তৈরি হওয়ার কারণেই।

 

 

 

তিন দিন এভাবেই পানির নিচে ছিলেন হ্যারিসন ওকেন। এখান থেকে তিন দিন পর তাকে উদ্ধার করা হয়েছিলো

গতকাল ২৯ জুন ঢাকার শ্যামবাজার এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে ময়ূরি-২ নামের একটি লঞ্চের খামখেয়ালিপনায় ডুবে যাওয়া ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ রুটের মর্নিং বার্ড লঞ্চ থেকে ১৩ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার হওয়া সুমন ব্যাপারী নিয়ে যেভাবে পক্ষে-বিপক্ষে মাতামাতি হচ্ছে তা রিতিমত হাস্যকর পর্যায়ে চলে গেছে। মনে হয় যেন লঞ্চ দুর্ঘটনা, ৩৩ জনের মৃত্যু এসব কোন সমস্যাই না বরং সব সমস্যা এই একটা ঘটনাই। এটা নিয়ে সবাই কথা বলছে। কিছু ভুলভাল ছবিও হাজির হয়ে গেছে যে – উদ্ধার হওয়া সুমন ব্যাপারী সারাদিন পুলিশের সাথে ছিলো এবং রাতে তাকে নিয়ে নাটক করা হয়েছে।

ধরেন তাকে নিয়ে নাটকই করা হয়েছে। আমরা কেন নাটক নিয়ে মাতামাতি করলাম। আমরা কেন মূল বিষয়ে ফোকাসড করলাম না। এটাই আপাতত জাতীগত ব্যর্থতা আমাদের। এবং এ ব্যর্থতা এসেছে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে। সোশ্যাল মিডিয়ার কিছু অতি-উৎসাহী এবং অতি-পন্ডিতরা সবকিছুতে এ ধরণের বাড়াবাড়ি করে মূল বিষয়কে আড়ালে নিয়ে যায় সব সময়। এরা মনে করে যে – তারা সরকারের খুব বিরোধিতা করছে এসব করে। বাস্তবিকে এসব করে যে তারা মূলত সরকারের বিভিন্ন ব্যর্থতা আড়াল করার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে তা খেয়ালই করে না।

তাই – এ ধরণের ঘটনায় মূল বিষয়ের দিকে ফোকাসড থাকুন। অনিয়ম, দুর্নীতি নিয়ে কথা বলুন। প্রয়োজনে মাঠে নামুন কিন্তু কোনভাবেই এসব তৃতীয় বিষয়ের দিকে নজর দিয়েন না। এ ধরণের কয়েকটি ঘটনাকে কোন (যেগুলোকে নাটক মনে করেন) গুরুত্ব দিয়েন না। তাতে দেখবেন বাস্তবেই যদি কোন নাটক মঞ্চায়িত হয়ে থাকে তাহলে ভবিষ্যতে আর সেই নাটকের কোন পুনরাবৃত্তি হবে না।

নির্বাহী সম্পাদক – পাবলিক ভয়েস।

মন্তব্য করুন