শনিবার: মৃত্যু ৩৫, মোট শনাক্ত ৬৩ হাজার ২৬ জন

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ২:৫১ অপরাহ্ণ, জুন ৬, ২০২০

মহামারী করোনাভাইরাসে আজ শনিবার (৬ জুন) দেশে আরো ৩৫ জনের ‍মৃত্যু হয়েছে এবং শনাক্ত হয়েছে ২৬৩৫জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু হলো ৮৪৬ জনের এবং শনাক্ত হলো ৬৩ হাজার ২৬জন। মৃতদের মধ্যে ২৮জন পুরুষ এবং ৭জন নারী।

এরমধ্যে হাসপাতালে মারা গেছে ২৫জন এবং বাড়িতে মারা গেছে ৯জন, মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে একজন। এছাড়াও এদিন সুস্থ হয়েছেন ৫২১জন। এনিয়ে মোট সুস্থ হলো ১২ হাজার ২৫জন।

আজ শনিবার (৬ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বুলেটিনের ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন, আইইডিসিআর এর মহাপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

আজকেও ৫০টি ল্যাবের তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে জানিয়ে নাসিমা সুলতানা জানান, নতুন করে সংযুক্ত হয়েছে বগুড়া টিএমএমএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাব। অন্যদিকে বঙ্গুবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবটি রিফ্রেশের জন্য গতকাল পরীক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় কোনো তথ্য সংযুক্ত হয়নি।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৯০৯টি। পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৪৮৬টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৮৫১টি।

এছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় আইসোলেশনে গেছে ৩১৪জন, ছাড় পেয়েছে ৯৮জন। এ নিয়ে মোট আইসোলেশনে গেছে ৭১৬২জন এবং মোট ছাড় পেয়েছে ৩৯৪৫জন।

এর আগে নতুন করে কিশোরগঞ্জের শহীদ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ পরীক্ষায় যুক্ত হলেও কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবটি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে সাময়িক বন্ধ হয়েছে।

এর আগে জামালপুর এসকে হাসপাতালের পরীক্ষার মেশিনে সাময়িক ত্রুটির কারণে বন্ধ হয়েছে। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাব স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়েছে।

প্রসঙ্গ : বাংলাদেশে গত ৮ ই মার্চ করোনাভাইরাস প্রথম ধরা পড়ে। এরপর হুহু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা এই মূহুর্তে প্রায় চার লাখ। প্রতিমূহুর্ত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। আজ ৬ জুন দুপুর ২টা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৯৮ হাজারেরও বেশি। এরমধ্যে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই প্রায় ১ লাখ ১১ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে।

বাংলাদেশেও প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিশেষ করে পরীক্ষা যতো বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে হু হু করে। বাড়ছে ঝুঁকি। এরইমধ্যে উঠে গেছে লকডাউন। স্বাস্থ্যবিভাগ থেকে বারবার সতর্কবার্তা এবং নাগরিকদের সচেতনতার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বুধবার পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যু রেকর্ড ছিলো ২২জন। পরেরদিন বৃহস্পতিবার রেকর্ড সর্বোচ্চ আক্রান্ত হয়। এরপর গত শুক্রবার ফের নতুন করে আক্রান্ত ও মৃতের সর্বোচ্চ রেকর্ড হলো। সেটা ভেঙে শনিবার হয় সর্বোচ্চ ২৮জনের মৃত্যুর নতুন সর্বোচ্চ রেকর্ড। সব ছাপিয়ে গত রোববার স্মরণকালের নতুন সর্বোচ্চ ৪০জনের মৃত্যু ২৫৪৫জন শনাক্তের রেকর্ড হয় দেশে। এরপর প্রতিদিনই ৩০ এর উপরে উঠানামা করছে মৃতের সংখ্যা

/এসএস

মন্তব্য করুন