সরকারি গাছ কাটার সময় চাপা পড়ে পথচারী মুক্তিযোদ্ধার করুণ মৃত্যু

ভেদরগঞ্জ, শরীয়তপুর

প্রকাশিত: ৮:০০ অপরাহ্ণ, জুন ৪, ২০২০
স্বজনদের আহাজারি

ইলিয়াছ মাহমুদ, শরীয়তপুর: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলায় গাছ চাপা পরে আবদুল লতিফ কাজী (৭৫) নামের এক মুক্তিযোদ্ধার করুণ মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) বিকেলে উপজেলার পাপরাইল- বুড়িহাট কাঁচাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ কাজী ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছয়গাঁও ইউনিয়নের পাপরাইল গ্রামের মৃতঃ হাজি শমসের কাজীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, স্থানীয় সোহাগ পেয়াদা ও তার ভাগিনা মামুন রাস্তার পাশের সরকারী গাছ অবৈধভাবে কাটছিলো। এসময় মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ কাজী রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় ওই গাছের নিচে চাপা পরেন। এতে মারাত্মকভাবে আহত হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

নিহতেন ছোটমেয়ে শিক্ষক আরজু জানান, বাবা দুপুরে খাবার খেয়ে বুড়িহাট যাবার সময় রাস্তায় গাছ চাপা পরে। আমরা সংবাদ শোনার পর দৌড়ে গিয়ে দেখি আমার বাবা আর নেই।

ছয়গাও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর মামুন বলেন, স্থানীয় সোহাগ পেয়াদা ও তার ভাগিনা মামুন রাস্তার সরকারী গাছ কাটার সময় ঐ গাছের চাপা পরে বীরমুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ কাজীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। আমি সংবাদ পেয়ে আমি উর্ধত কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। ওসি ভেদরগঞ্জ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ ময়না তদন্তেরর জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছ।

ভেদরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, মুক্তিযোদ্ধা লতিফ কাজি গাছ চাপা পরে মারা ঘটনা স্থলেই মারা গেছে। মৃতদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এখনো কোনো মামলা হয়নি। মামলা হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়া হবে। নিহতের ময়না তদন্তের পরে তাকে রার্ষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে।

/এসএস

মন্তব্য করুন