নাটোরে ১০ বছর বয়সী গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ : আ’লীগ নেতা আটক

প্রকাশিত: ৮:৪৮ অপরাহ্ণ, জুন ৪, ২০২০
ছবি : পাবলিক ভয়েস প্রতিনিধি।

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের উপলশহর এলাকায় ১০ বছর বয়সী এক শিশু কন্যা গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা সাখাওয়াত হোসেন (৫০)কে আটক করেছে।

সাখাওয়াত হোসেন উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপলশহর এলাকার মৃত খয়েরউদ্দিন ছেলে।

শিশুটির পরিবার এবং এলাকাবাসী জানায়, শিশুটির পরিবার অতিদরিদ্র হওয়ায় ২ মাস আগে সাখাওয়াতের বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতে থাকে।

গত শুক্রবার দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে সাখাওয়াত শিশু কণ্যাটিকে নিজ ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে শিশুটি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় এবং ঘটনাটি ধামা চাপা দেওয়ার জন্য মোটা অংকের টাকার প্রস্তাব দেয়।

পরে আস্তে আস্তে ধর্ষণের ঘটনা এলাকায় জানাজানি হয়ে গেলে স্থানীয় গন্যমান্য লোকজন পুলিশকে খবর দেয় এবং এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে।

বডাইগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মমিন আলী জানান, অপরাধী যেই দলেরই হোক না কেন তার বিচার হওয়া দরকার। তিনি এ ঘৃণ্যতম ঘটনার উপযুক্ত শাস্তি দাবি করেন।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সাখাওয়াত হোসেনকে আটক করা হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণ মামলা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।

অপরদিকে নাটোরের বড়াইগ্রামে সাত বছর বয়সী এক কন্যা শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় তার চাচাতো ভাই মনিরুল ইসলামকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে নাটোর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মনিরুল ইসলাম উপজেলার তিরাইল গ্রামের আব্দুল আওয়ালের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, গত শুক্রবার বাড়ির সদস্যরা বাড়ির বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত থাকার সুযোগে মনিরুল চকলেট দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তার চাচাতো বোনকে নিজ ঘরে ডেকে নেয়। পরে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন তিনি। এ সময় শিশুটির চিৎকারে স্বজনরা এগিয়ে এলে মনিরুল পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে থানায় এ ব্যাপারে অভিযোগ দায়ের করার পর পুলিশ মনিরুলকে আটক করে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলিপ কুমার দাস জানান, থানায় এ ব্যাপারে মামলা এজাহারভুক্ত করা হয়েছে এবং আসামী মনিরুলকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

#আরআর/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন