চীনের শেষ, ভারতের কেবল শুরু!

প্রকাশিত: ৫:৫৩ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০

১ মার্চ ২০২০। চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ২৬ জন এবং মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ৯১২। ঠিক ওইদিন পর্যন্ত ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ৩, মৃত্যুবরণ করেননি একজনও। সেই সময় থেকে তিন মাসের ব্যবধানে ভারত মৃতের দিক থেকে ছাড়িয়ে গেছে করোনার আঁতুড়ঘর চীনকেও। সংক্রমণের সংখ্যায় তো ছাড়িয়ে গেছে বেশ আগেই।

চীনে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ৪ হাজার ৬৩৪। গত ১৭ এপ্রিলের পর দেশটিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আর কোনো মানুষের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া যায়নি। ওদিকে ভারতে এখন পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন ৪ হাজার ৯৮০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৬৯ জন।

চীনের যেখানে শেষ, ভারতের তখন কেবল শুরু। তবে চীন শক্ত হাতে করোনার সংক্রমণ রুখে দিতে পেরেছে যা পৃথিবীর অধিকাংশ দেশগুলোই পারছে না। বিশেষকরে নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরও ভারতের সংক্রমণ পরিস্থিতি যাচ্ছেতাই। চীনের মোট আক্রান্তের সংখ্যা যেখানে ৮২ হাজারে থেমে গেছে সেখানে ভারতে বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭৪ হাজার।

ভারতে এত সংক্রমণের পরও কোনো কোনো বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশটির জন্য এটা শুরু মাত্র! জুলাইয়ের শুরুতে সংক্রমণ শীর্ষে পৌঁছাবে সেখানে। গতকালও দেশটির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেলথ অ্যান্ড নিউরোসায়েন্সের (নিমহ্যান্স) একদল চিকিৎসক গবেষণা করে দেখিয়েছেন পুরো ২০২০ সাল জুড়েই ভারতকে কমবেশি ভুগতে হবে এই ভাইরাসের কারণে। প্রায় ৬৭ ভারতীয়র শরীরে এই জীবাণু ছড়িয়ে পড়তে পারে, এমন হুঁশিয়ারিও উচ্চারণ করেছেন তারা।

এমএম/পাবলিকভয়েস

মন্তব্য করুন