করোনা আক্রান্তদের হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন দেওয়া যাবে না: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ২৬, ২০২০

করোনার প্রতিষেধক হিসেবে কার্যকরিতার কথা উঠলে হঠাৎ করে কদর বেড়ে ম্যালেরিয়ার ঔষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের। ঔষুধটির সর্বোচ্চ উৎপাদক দেশ ভারত এটি রপ্তানি বন্ধ করে দেয় নিজ দেশের নাগরিকদের চিকিৎসা দেয়ার জন্য।

সেসময় এটি না পেয়ে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট মোদির নিন্দা করে ভারতকে কঠোর হুমকিও দেয়। অন্যদিকে বাংলাদেশকে ২০ লাখ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেট দেওয়ার ঘোষণা দেয় ভারত। পরে গত ২৬ এপ্রিল এক লাখ ট্যাবলেট পাঠায় ভারত।

ব্যপক আলোচিত সেই ঔষধটির ব্যবহার ট্রায়াল বন্ধ ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

গত সপ্তাহে ল্যানসেটের গবেষণায় জানা গিয়েছিল, করোনা আক্রান্তের উপরে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের প্রয়োগে মৃত্যুর সম্ভাবনা বাড়ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস অ্যাডহ্যানোম গ্যাব্রিয়েসাস জানান, সুরক্ষা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখার পর আপাতত হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের ক্লিনিকাল ট্রায়াল বন্ধ করা হচ্ছে।

করোনার চিকিৎসায় বিভিন্ন দেশে পরীক্ষামূলক ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের প্রয়োগ শুরু হয়েছিল। তবে এই ওষুধ সেবনে অনেকের হৃদস্পন্দনে গুরুতর অস্বাভাবিকতা দেখা দিতে পারে বলে যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফডিএ সতর্কবার্তা দিয়েছিল।

এর আগে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থাও ক্লোরোকুইন ও হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে সতর্ক করে বিবৃতি দেয়।

/এসএস

মন্তব্য করুন