ভোলায় পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় হামলা, আহত ১২

প্রকাশিত: ১১:১০ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০২০

ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার বোরহানউদ্দিনে এক প্রবাসী স্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় ধরা খাওয়ার পর স্থানীয়দের ওপর পাল্টা হামলার অভিযোগ উঠেছে মো. মাকসুদ নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

পরকীয়ায় বাধাপ্রাপ্ত হয়ে সন্ত্রাসী হামলা করেছে অভিযোগ স্থানীয়দের। এতে নারী-পুরুষসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর ৪ জন ভোলা সদর হাসপাতলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন এবং বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫জন। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বোরহানউদ্দিন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি। অভিযুক্তরা প্রকাশ্যে ঘুড়ে বেড়াচ্ছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন ভুক্তভোগীরা।

হামলায় আহতরা হলেন, জাহানারা বেগম (৩৬), আব্দুল আলীম (৩৫), মোঃ কামরুল (২৮), মোঃ বিল্লাল (২৬), জাকির হোসেন (২৩), মোঃ কবির (২৪), হাসান (২৩), মোঃ হাসান (২২), মোঃ আব্দুল রব (২৫), মোঃ শাকিল (২০), মোঃ মহিউদ্দিন (৩৩) মোঃ জমিস (৩৬)। আর বাকীদের নাম পাওয়া যায়নি। এরা সবাই টবগী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

আহত ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. নাগর পরিবারের আর্থিক সংঙ্কটের জন্য গত ৭ বছর ধরে মালদ্বীপে কাজ করছেন। এ সুযোগে তার স্ত্রী জাহানারা নার্গিস বেগম (৩০) তার ছোট বোন পারভিনের দেবর মাকসুদুর রহমানের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পরে।

কয়েকবার তাদের দু’জনকে স্বামী নাগরের ঘর থেকে আপত্তিকর অবস্থায় এলাকাবাসী আটক করে। এ নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য রতন মেম্বার কয়েকবার সালিশ করলেও পরকীয়া থেকে বিরত থাকেনি মাকসুদ ও নার্গিস।

সর্বশেষ গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে মাকসুদ নার্গিসের সাথে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী ধাওয়া করে। এসময় মাকসুদ তার সন্ত্রাসী বাহিনী নয়ন, হুমায়ুন, আব্দুল রহিম, সালাউদ্দিন, হাসান ও লিটনসহ ১৫-২০ নিয়ে হামলা চালায়। এ হামলার ঘটনার নেতৃত্বে দেয় আব্দুল কালাম হেজু। এসময় তারা স্থানীয় নারী ও পুরুষসহ ১৪ জনকে লাঠি ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. এনামুল হক জানান, দুই পক্ষই থানায় অভিযোগ করেছে। বিষয়টি তদন্ত চলছে। দ্রুত এ ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

/এসএস

মন্তব্য করুন