দেশে ২৪ ঘন্টায় মৃত ৮, আক্রান্ত ৬৩৬

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

প্রকাশিত: ২:৫২ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২০

আজ শনিবার (৯ মে) মহামারী করোনাভাইরাসে দেশে নতুন করে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনাক্ত হয়েছেন ৬৩৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু হলো ২১৪ জনের এবং মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৭৪৩ জন।

শনিবার (৯ মে) দুপুরে সংবাদ বুলেটিনের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন আইইডিসিআর এর অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় দেশে সুস্থ হয়েছেন ৩১৩ জন এনিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ২৪১৪। এছাড়াও এদিন নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৪৬৫টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১ লাখ ১১ হাজার ৯৭৮টি।

বাংলাদেশে গত ৮ ই মার্চ করোনাভাইরাস প্রথম ধরা পড়ে। এরপর হুহু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গত এক সপ্তাহ ধরে এই আক্রান্তের সংখ্যা ৫শ থেকে ৭শ এর মধ্যে উঠানামা করছে।

করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা এই মূহুর্তে তিন লাখের কাছাকাছি। প্রতিমূহুর্ত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। ২ লক্ষ ৭৬ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছে এখন পর্যন্ত। এরমধ্যে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই ৭৮ হাজার ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা।

বাংলাদেশেও প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিশেষ করে পরীক্ষা যতো বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে হু হু করে। বাড়ছে ঝুঁকি।

এদিকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে দোকান-পাট খুলে দেওয়ার উদ্যোগে ব্যাপক সংক্রমণের আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম কালাম আজাদ

বলেছেন, পরিস্থিতি খুব খারাপ হলে একদিনে ৬৫ হাজারের মতো মানুষ আক্রান্ত হতে পারে, এক্সপার্টদের এমন একটা বিশ্লেষণ আমাদের কাছে আছে।

আন্তর্জাতিক একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমাদের কাছে দুটি বিশ্লেষণ আছে। সর্বোচ্চ সংক্রমণের ভবিষ্যদ্বাণী করা বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, দিনে আক্রান্ত হবে ৬৫ হাজার মানুষ। তার মধ্যে যদি ২০ ভাগ লোককেও হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় তাহলে ১২ থেকে ১৪ হাজার মানুষকে ভর্তি করতে হবে একদিনেই। আমাদের মতো দেশের পক্ষে যেটা বেশ কঠিন। তারপরও আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি প্রতিনিয়ত।

অধ্যাপক আবুল কালাম কালাম আজাদ আরো বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধের ক্ষেত্রে পরিকল্পনা নেওয়ার সময় আমরা এসব বিশ্লেষণকে মাথায় রাখছি। দেশব্যাপী হাসপাতালের শয্যাসংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। বসুন্ধরা সিটির কাছ থেকে পাচ্ছি ২ হাজার শয্যার আইসোলেশন হাসপাতাল।

  • করোনাভারাসের নিয়মিত আপডেট প্রকাশ করছে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় ও চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন।

সম্মিলিত সংকলিত সর্বশেষ তথ্য অনুসারে করোনাভাইরাসে সর্বশেষ আজ (শনিবার ৯ মে) দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী, ৪০ লাখ ১৪ হাজার ৫০৩ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৬ হাজার ২৫৩ জনের। এছাড়া সুস্থ হয়েছে ফিরেছেন ১৩ লাখ ৮৭ হাজার ২৭৪ জন।

এরমধ্যে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই ১৩ লাখ ২২ হাজার ১৬৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৭৮ হাজার ৬১৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ২৩ হাজার ৭৪৯ জন।

এদিকে ইতালিকে ছাপিয়ে মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে চলে এসেছে যুক্তরাজ্য। আজ শনিবার ব্রিটেনে মৃত্যের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩১ হাজার ২৪১ জন। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১১ হাজার ৩৬৪ জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন মাত্র ৩৪৪ জন।

অন্যদিকে ইতালিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩০ হাজার ২০১ জন। দেশটিতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ১৭ হাজার ১৮৫ জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন ৯৯ হাজার ২৩ জন।

এদিকে এখনো পর্যন্ত আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যা স্পেনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ৬০ হাজার ১১৭ জন। দেশটিতে মৃত্যুবরণ করেছেন চতুর্থ সর্বোচ্চ ২৬ হাজার ২৯৯ জন এবং সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ১ লাখ ৬৮ হাজার ৪০৮ জন।

এরপরই পঞ্চম সর্বোচ্চ ২৬ হাজার ২৩০ জন মারা গেছে ফ্রান্সে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৭৯ জন। সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ৫৫ হাজার ৭৮২ জন।

এছাড়াও জার্মানি ও রাশিয়ায় যথাক্রমে ১ লাখ ৭০ হাজার ৫৮৮ জন্য এবং ১ লাখ ৮৭ হাজার ৮৫৯ জন লোক আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া মৃত্যুবরণ করেছে যথাক্রমে জার্মানিতে ৭ হাজার ৫১০ জন ও রাশিয়ায় ১ হাজার ৭২৩ জন।

এসএস/পাবলিকভয়েস/

মন্তব্য করুন