সিরিয়া ইস্যুতে ফের বৈঠকে রাশিয়া-তুরস্ক

প্রকাশিত: ৩:৩৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
সিরিয়ায় মোতায়েন রাশিয়া ও তুরস্কের যুদ্ধযান (ছবি : ওয়ার্ল্ড নিউজ)

মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত রাষ্ট্র সিরিয়ার বিরোধপূর্ণ ইদলিব প্রদেশ নিয়ে টানা দ্বিতীয় দফায় বৈঠকে বসেছে রাশিয়া ও তুরস্ক। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী মস্কোতে অনুষ্ঠিত বৈঠকের উদ্দেশ্য ছিল অঞ্চলটির উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানায়, বৈঠকে রুশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন সিরিয়ায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত সের্গেই ভারশিনিন এবং তুর্কি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেদাত ওনাল। এবার তারা ইদলিবের নিরাপদ অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া সংঘাত নিরসনের পথ খোঁজার চেষ্টা করেন।

বৈঠকে শীর্ষ পর্যায়ের কূটনীতিকদের পাশাপাশি উভয় দলের সামরিক ও গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন। কূটনৈতিক সূত্রে জানা যায়, তুরস্কের প্রতিনিধিরা অঞ্চলটিতে যুদ্ধ কমিয়ে আনার পাশাপাশি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রেখে মানবাধিকার সহায়তা প্রদানের প্রতি জোর দেন।

বিশ্লেষকদের মতে, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে তুরস্ক ও রাশিয়া সরকারের মধ্যে ইদলিবের নিরাপদ অঞ্চল নিয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সেখানে এমন আগ্রাসনগুলোকে সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করা হয়।

যদিও চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি রুশ সমর্থিত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের নির্দেশে বিদ্রোহীদের সর্বশেষ ঘাঁটি ইদলিবে জোরালো সেনা অভিযান শুরু হয়। আর এতেই নতুন করে শরণার্থীদের ঢল নামার আশঙ্কায় প্রেসিডেন্ট এরদোগান সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা ও সাঁজোয়া যান পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩ লাখ ৯০ হাজার মানুষ ইদলিব ছেড়ে পালিয়েছে। যার মধ্যে অধিকাংশই নারী ও শিশু। বর্তমানে তুরস্কে আশ্রিত অবস্থায় আছে আরও ৩৫ লাখের অধিক সিরিয়ান শরণার্থী। যদিও উত্তেজনার কারণে নতুন করে শরণার্থীদের ঢলের আশঙ্কায় রয়েছে পূর্ব ইউরোপের এই দেশটি।

আই.এ/

মন্তব্য করুন