শতাধিক প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে জর্ডান যাচ্ছে তাহফিজের ছাত্র হোসাইন

প্রকাশিত: ৯:৩৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২০

শতাধিক প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে জর্ডানে অনুষ্ঠিতব্য ‘আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায়’ বাংলাদেশী প্রতিনিধি হিসেবে যাচ্ছেন হাফেজ ক্বারী নেছার আহমাদ আন নাছিরী প্রতিষ্ঠিত যাত্রাবাড়ীস্থ মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল হিফজ মাদরাসার ছাত্র হাফেজ হোসাইন আহমদ।

আজ বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ইসলামিক ফাউন্ডেশনের তত্বাবধানে বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিধি বাছাই পর্বের পরীক্ষায় শতাধিক প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে উত্তীর্ণ হয়েছেন হাফেজ হোসাইন আহমদ। প্রতিযোগীতায় অংশ নিতে আগামী শাওয়াল মাসে তিনি জর্ডান যাবেন। প্রশিক্ষক হিসেবে তার সঙ্গে শায়েখ নেছার আহমাদ আন নাছিরীও সেখানে যাবেন।

পাবলিক ভয়েসকে এ তথ্য নিশ্চিত করে মাদরাসার পরিচালক হাফেজ ক্বারী নেছার আহমাদ আন নাছিরী বাংলাদেশী প্রতিনিধি হাফেজ হোসাইন আহমদের সফলতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, প্রতিযোগিতাটি জর্ডানের রাজধানী আম্মানে আরবী শাওয়াল মাসে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিযোগিতায় ৭০টি দেশের প্রতিনিধি অংশ নেবেন।

১৩ বছর বয়সী হাফেজ হোসাইন আহমদের বাবা মুখলেসুর রহমান মাদরাসার শিক্ষক। সিলেট জেলার গোয়াইনঘাটে তার বাড়ি।

এর আগে কিশোর এই হাফেজ সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে মূলপর্বে স্থান করে ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করেন।

একাধিকবার আন্তর্জাতিক সনদপ্রাপ্ত বিশ্বসেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার ছাত্র হাফেজ সাইফুর রহমান ত্বকি ২০১৯ সালে এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ৬২ দেশের প্রতিনিধিকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

এর আগের বছর (২০১৮) এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন হাফেজ গাজী আবদুল্লাহ। হাফেজ গাজী আবদুল্লাহও এই প্রতিষ্ঠানের ছাত্র ছিলেন।

/এসএস

মন্তব্য করুন