নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর অনশন

প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯
কেরালার মুখ্যমন্ত্রী ও সিপিএম নেতা পিনারাই বিজয়

ভারতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (এনআরসি) আইনে পরিণত হয়েছে। এর প্রতিবাদে আসামের পর ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে পশ্চিমবঙ্গ, কেরালাসহ বিভিন্ন রাজ্য। সংশোধিত এই নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করে এরই মধ্যে অনশনে বসতে যাচ্ছেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী ও সিপিএম নেতা পিনারাই বিজয়ন।

সিপিএম সূত্রের বরাতে গণমাধ্যম ‘এনডিটিভি’ জানায়, সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে তিরুবনন্তপুরমের পালায়মের শহিদ মিনারে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই ও বিরোধী নেতা রমেশ চেনিথালাসহ তাদের সমর্থকরা অনশনে বসবেন। তাদের মতে, কোনো ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড ছাড়া বিতর্কিত আইনটির বিরোধিতা করা ও বিজেপিকে আটকানোর একমাত্র পথই হলো এই অনশন।

পার্লামেন্টে আইনটি পাস হওয়ার পরপরই মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন স্পষ্ট ভাষায় বলেছিলেন, ‘কেরালায় কোনোদিন এই আইন কার্যকর হতে দেওয়া হবে না। কেননা এটি ভারতকে হিন্দুরাষ্ট্র তৈরির প্রচেষ্টা মাত্র।’ মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘নাগরিকত্ব আইনের আড়ালে বিজেপি আদতে ভারতীয় সংবিধানের সাম্য, ধর্ম নিরপেক্ষতার বৈশিষ্ট্যকে গলা টিপে হত্যা করছে। তাই কেরালার জনগণ ঐক্যবদ্ধভাবে আইনটির বিরোধিতা করবে।’

এর আগে সোমবার (৯ ডিসেম্বর) ভারতের লোকসভায় বহুল আলোচিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হয়। বিলটিতে প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা অমুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। পার্লামেন্টে বিলটি উত্থাপন করেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এরপর বুধবার (১১ ডিসেম্বর) রাজ্যসভায় পাস হয় বিলটি। রাজ্যসভায় এই বিলের পক্ষে ভোট পড়েছে ১২৫টি। আর বিপক্ষে পড়েছে ১০৫টি ভোট। যার প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার রাতে বিতর্কিত এই বিলটি রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের মাধ্যমে আইনে পরিণত করা হয়।

আই.এ/

মন্তব্য করুন