ইরাকে সমাবেশ; পোড়ানো হলো ট্রাম্প, নেতানিয়াহু ও যুবরাজের কুশপুত্তলিকা

প্রকাশিত: ৬:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

ইরাকের সরকারপন্থী প্রতিরোধকারী সংগঠন পপুলার মোবিলিজেশন ইউনিটের হাজার হাজার সমর্থক মার্কিন সরকারের হস্তক্ষেপ এবং নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে রাজধানী বাগদাদে সমাবেশ করেছেন।

পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হলো। সমাবেশে যোগ দেয়া লোকজন আমেরিকার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং ইরাকের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপের নিন্দা জানান।

শনিবার পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের সর্মথকরা বাগদাদের ফেরদৌস স্কয়ারে এ সমাবেশ করেন। এ সময় তারা মার্কিন ও ইহুদিবাদী ইসরাইলের পতাকা পোড়ান।

পাশাপাশি বিক্ষোভকারীরা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এবং সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। বিক্ষোভে অংশ নেয়া লোকজন আমেরিকা এবং ইসরাইলের ধ্বংস কামনা করে নানা শ্লোগানও দেন।

গত ৬ ডিসেম্বর মার্কিন সরকার পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের চার নেতার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। ইরাকের বহুসংখ্যক সংসদ সদস্য মার্কিন সরকারের এই পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছেন। এছাড়া, ইরাকের প্রভাবশালী ধর্মীয় নেতা আম্মার আল-হাকিম এক বিবৃতিতে মার্কিন সরকারের পদক্ষেপকে ইরাকের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে চরম হস্তক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছেন।

আইএ/

মন্তব্য করুন