মুছে ফেলা হচ্ছে কাশ্মীরিদের হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট

প্রকাশিত: ৭:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের অধিবাসীদের হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ধীরে ধীরে মুছে দেয়া হচ্ছে। কাশ্মিরবাসীরা এ বিষয়ে কিছুই আঁচ পর্যন্ত করতে পারছেন না এবং তাদের প্রায় অগোচরেই এ তৎপরতা চলছে।

গত চার মাস ধরে কাশ্মিরে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রেখেছে ভারত সরকার। আর একে অজুহাত হিসেবে ব্যবহার করছে ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ। তারা দাবি করছে ফেসবুকের নীতিমালা অনুযায়ী কথিত ‘নিষ্ক্রিয়’ ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট মুছে দেয়ার তৎপরতা চলছে পুরোদমে।

এ হোয়াটসঅ্যাপের এ তৎপরতার বিষয়টি জানতে পারেন নি অনেক কাশ্মিরবাসী। কিন্তু কোনও কোনও ব্যক্তির কাছে এটি ধরা পড়ে। তারা টুইটার বার্তায় বিষয়টি তুলে ধরেন। কেনও এমনটি হচ্ছে সে বিষয়ে কোনও ধারণা পর্যন্ত করতে পারেন নি তারা। রহস্যটি পরিষ্কার করেন ফেসবুকের একজন মুখপাত্র। তিনি বাজফিড নিউজকে বলেন, হোয়াটসঅ্যাপের নিষ্ক্রিয় ব্যবহারকারীদের সংক্রান্ত নীতিমালার ভিত্তিতে ঘটছে এমনটি ।

এ মুখপাত্র আরও জানান, নিরাপত্তা এবং ডাটা ব্যবহারের মাত্রা বজায় রাখার স্বার্থে ১২০টি নিষ্ক্রিয় থাকলে সে অ্যাকাউন্ট মুছে দেয়া হয়।

গত চারমাস ধরে কাশ্মিরে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রেখেছে ভারত সরকার। এতে বিশ্ব থেকে কাশ্মিরবাসীদের বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। ফলে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট মুছে যাওয়ার ঘটনা আঁচ করতেও পারবেন না কাশ্মিরের ভুক্তভোগী সাধারণ মানুষ।

আই.এ/

মন্তব্য করুন