চট্টগ্রামে ৩ দিনব্যাপী জোড় ইজতেমা শুরু আজ

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯

এম কালিম উল্লাহ, কক্সবাজার প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার চারিয়ায় আলমী শুরার ৩ দিনব্যাপী জোড় ইজতেমা হয়েছে আজ শুক্রবার। কাকরাইলের শুরার সাথী মাওলানা আব্দুল বারের বয়ানের মাধ্যমে এ জোড় ইজতেমা শুরু হয়।

জোড় ইজতেমায় চট্টগ্রাম বিভাগের জেলাগুলো তথা চট্টগ্রাম, রাংগামাটি,খাগড়াছড়ি,বান্দরবান,কক্সবাজার, ফেনী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, লক্ষীপুর, চাদপুর, বিবাড়িয়া, সিলেট, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার থেকে তিন চিল্লার লাখো সাথীরা অংশগ্রহণ করেছেন।

হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমেদ শফি, আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, তাবলীগ জামাতের মুরব্বী আল্লামা হাফেজ জুবাইর আহমেদ সহ ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের প্রায় শীর্ষস্থানীয় আলমী শুরার মুরুব্বী ও দেশের বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরাম ইজতেমায় বয়ান করবেন।

জানা যায়, বাদ জুমা বয়ান করবেন হাটহাজারী মাদরাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস, দাওয়াতে তাবলীগের চট্টগ্রামের শীর্ষ মুরব্বী মুফতি জসিম উদ্দীন এবং বাদ মাগরিব বয়ান করবেন ভারতের মুরব্বী মাওলানা ইক্ববাল।বয়ানের অনুবাদক হিসেবে থাকবেন, কাকরাইলের মুরব্বী মাওলানা ওমর ফারুক।

ইজতিমা উপলক্ষে নিরাপত্তা জোরদার করেছে প্রশাসন, সাথে রয়েছে প্রায় ৫ হাজার ইজতেমার নিজস্ব নিরাপত্তা পাহারদারের জামাত। নেওয়া হচ্ছে বিশেষ ট্রাফিক ব্যবস্থা। ইজতেমা চলাকালীন হাটহাজারী থেকে সরকার হাট পর্যন্ত সকল প্রকার মাইক নিষিদ্ধ করেছে প্রশাসন।

ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের গাড়ির জন্য আলাদা পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রয়েছে। হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। বাতিল করা হয়েছে সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি। বেসরকারিভাবেও বেশ কয়েকটি চিকিৎসা ক্যাম্প খোলা হয়েছে। রয়েছে জরুরি অ্যম্বুলেন্স সার্ভিস। প্রশাসনের পক্ষ থেকে খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম। ইজতিমায় লাখো মুসল্লির সমাগম ও জুমার আগে আগত মুসল্লিদের ভিড় পরিলক্ষিত হচ্ছে। এবারের ইজতেমায় গতবারের চেয়ে বেশি জামাত খুরুজ হবে বলে আশা করছেন মুরুব্বীরা।

আই.এ/

মন্তব্য করুন