বাবরি মসজিদ ভাঙার ২৭ বছর আজ; কড়া অবস্থানে প্রশাসন

প্রকাশিত: ১০:২০ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৯

ইসমাঈল আযহার: আজ শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) বাবরি মসজিদ ভাঙার ২৭ বছর। ২৭ বছর আগে এই দিনের শেষ রাতে একদল হিন্দু ঝাপিয়ে পড়েছিল বাবরি মসজিদের ওপর। তারা আল্লাহর ঘর মসজিদকে নিজদের ঔদ্ধত্ব দেখিয়ে মসজিদ ভেঙে ফেলল। পরে অবশ্য তাদের অনেকেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

বাবরি ভাঙ্গার এই দিনে রাজ্যে যেন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেই মর্মে পুলিশ প্রশাসনকে সতর্ক আগেই করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুলিশ সুপারদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন ডিজি শ্রী বীরেন্দ্রও।

আজ রাজ্যে এমন কোনও অনুষ্ঠান করতে দেওয়া হবে না, যাতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হয়। ভিন রাজ্য থেকে এসে কেউ কেউ উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখছেন বলেও অভিযোগ করেন মমতা। নাম না করে আলাউদ্দিন ওয়াইসির ব্যাপারেও পুলিশকে সতর্ক করেন মমতা। প্রত্যেক থানা এলাকায় আজ বাড়তি নজরদারি দিতে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, গত বছর ৬ ডিসেম্বরের আগেও মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে অশান্তি বাধানোর চেষ্টা করছে কোনও কোনও সংগঠন। এদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে বলেন মমতা। এবারের ৬ ডিসেম্বরে পরিস্থিতিটা আরও একটু তাৎপর্যপূর্ণ।

গত কয়েকদিন আগে অযোধ্যা মামলায় রায় ঘোষণা করেছে সুপ্রিম কোর্ট। অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রামমন্দির নির্মাণের অনুমতি দিয়েছে শীর্ষ আদালত। বদলে মুসলিম পক্ষকে অযোধ্যাতেই বিকল্প ৫ একর জমি দেওয়ার কথা বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। যদিও এই রায়ে অসন্তুষ্ট জামাত-এ-উলেমা-হিন্দ ইতিমধ্যেই রায় পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন জানিয়ে শীর্ষ আদালত দ্বারস্থ হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে আ রাজ্যে কোনওরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি আটকাতে কড়া অবস্থানে প্রশাসন।

আই.এ/

মন্তব্য করুন