১৯ নভেম্বর বাণিজ্য মন্ত্রণালয় অভিমুখে ইসলামী আন্দোলনের গণমিছিল

প্রকাশিত: ৯:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

পেঁয়াজের লাগামহীন অব্যহত মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আগামী ১৯ নভেম্বর মঙ্গলবার বাণিজ্য মন্ত্রণায়ল অভিমুখে গণমিছিলের ডাক দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। বাজার নিয়ন্ত্রণে মন্ত্রণালয়ের ব্যর্থতার প্রতিবাদে এ গণমিছিল করবে দলটি।

আজ শনিবার বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ইসলামী আন্দোলনের মজলিসে আমেলার সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা ইউনুছ আহমাদ।

এসময় তিনি বলেন, পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের বাজার দর নিয়ন্ত্রণে সরকার চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি জনজীবন বিপর্যস্ত করে তুলেছে। সরকার সিন্ডিকেট রুখতে পারেনি। শীর্ষ মন্ত্রীগণ দায়িত্বহীন বক্তব্য দিয়ে জনগণের সাথে তামাশা করছেন।

তিনি বলেন, মানুষের মৌলিক অধিকার বলতে নেই। মানুষ মত প্রকাশ করতে পারছে না। সরকার জনগণের জন্য কাজ করতে ব্যর্থ হয়েছে। সর্বত্র আতঙ্ক বিরাজ করছে। এভাবে একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র চলতে পারে না। এর আশু সমাধান প্রয়োজন। তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রী সবসময়ই বলেন, দু’এক দিনের মধ্যে বাজার ঠিক হয়ে যাবে। তার বক্তব্যের পরই বাজারে আগুন লাগে। গতকালও নাকি রংপুরে ৩০০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে। তিনি দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার প্রতিবাদে ১৯ নভেম্বর বাণিজ্য মন্ত্রণালয় অভিমুখে গণমিছিল কর্মসূচি সফলের আহ্বান জানান।

সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলে জনগণের জন্যও সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা নেই। ব্যর্থতার দায় নিয়ে সরকারকে পদত্যাগ করে নতুন নির্বাচনের মাধ্যমে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন অধ্যক্ষ ইউনুছ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, সহকারী মহাসচিব আমিনুল ইসলাম ও মাওলানা আব্দুল কাদের, মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মুফতী সৈয়দ এছহাক মুহা. আবুল খায়ের, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন সাকী, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, হারুন অর রশিদ, মুফতী হেমায়েতুল্লাহ, শেখ ফজলে বারী মাসউদ, মুফতী সৈয়দ নূরুল করীম, আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, মাওলানা নেছার উদ্দিন, এডভোকেট লুৎফুর রহমান শেখ, ইঞ্জিনিয়ার শরীফুল ইসলাম তালুকদার, এড. শওকত আলী হাওলাদার, মুফতী কেফায়েতুল্লাহ কাশফী, বরকত উল্লাহ লতিফ, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, আলহাজ্ব সেলিম মাহমুদ, মাওলানা খলিলুর রহমান প্রমুখ।

এদিকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ বলেছেন, সরকারের ব্যর্থতায় এবং সিন্ডিকেটের দৌরাত্মে ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। পেঁয়াজের ঝাঁঝে নাকাল দেশবাসী। এর দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থ হয়েছে। এর দায় নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রীকে অবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে।

আজ শনিবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মহানগর উত্তরের মজলিসে শুরার অধিবেশনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নগর সেক্রেটারী মাওলানা মোঃ আরিফুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন মাওলানা নুরুল ইসলাম নাঈম, ইঞ্জি. মুরাদ হুসাইন, মুফতি ফরিদুল ইসলাম, এস.এম মাঈনুদ্দীন জাহাঙ্গীর, ডা. মুজিবুর রহমান, ইঞ্জি. গিয়াস উদ্দীন, হাজী আলাউদ্দীন প্রমূখ।

/এসএস

মন্তব্য করুন