দুইয়ের বেশি সন্তান হলে মিলবে না সরকারি চাকরি

প্রকাশিত: ১:৩৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

ইসমাঈল আযহার
পাবলিক ভয়েস

সরকারি চাকরি মানেই সোনার হরিণ। আর দুইয়ের বেশি সন্তান হলেই এই সোনার হরিণ ভাগ্যে জুটবে না ভারতের আসাম রাজ্যের বাসিন্দাদের। জন্ম নিয়ন্ত্রণ করতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে আসাম সরকার। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সর্বানন্দ সোনোয়ালের মন্ত্রিসভার তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভারতীয় গণমাধ্যম জি নিউজ আজ বুধবার এক প্রতিবেদনে এই সংবাদ দিয়েছে।

সিদ্ধান্তে বলা হয়,  দুইয়ের বেশি সন্তান থাকলে সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে। মিলবে না সরকারি চাকরিও। এমনকি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না দুইয়ের বেশি সন্তানের পিতা-মাতারা।

আগেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তবে, আইনি শিলমোহর দিয়ে বিজেপি শাসিত অসম সরকার জানায়, এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে ২০২১ সালে ১ জানুয়ারি থেকে।

২০১৭ সালে জনসংখ্যা নিয়ে একটি খসড়া তৈরি হয়, সেখানে এই সিদ্ধান্তের উল্লেখ ছিল। এ দিন সে রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী মোহন পটওয়ারি জানান, জনসংখ্যা কমাতেই এই পদক্ষেপ করা হচ্ছে। তবে এ সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যে সমালোচনা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

উল্লেখ্য, আসামে এনআরসি নিয়ে অব্যাহত। নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়া ১৯ লক্ষ মানুষের ভবিষ্যত অনিশ্চিয়তার মধ্যে। এই আবহে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সরকারের এমন মনোভাবে সরব বিরোধীরা।

আই.এ/

মন্তব্য করুন