বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির মামলার রায় ঘিরে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা

প্রকাশিত: ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৪, ২০১৯

বাবরি মসজিদ-রাম জন্মভূমি বিরোধ নিয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট আগামী ১৭ নভেম্বর রায় ঘোষণা করতে পারেন। এই রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে শনিবার থেকেই এই নির্দেশ কার্যকর হয়েছে।

এক টুইট বার্তায় অনুজ কুমার বলেন, আমি আরও মনে করিয়ে দিতে চাই, বেআইনি ও অনাকাঙ্ক্ষিত কর্মকাণ্ড প্রতিরোধে ৩১ আগস্ট থেকে আরেকটি নির্দেশ কার্যকর রয়েছে। শনিবার জারি করা নির্দেশে আরও কয়েকটি এলাকা যুক্ত করা হয়েছে, যা আগের নির্দেশে অন্তর্ভুক্ত ছিল না।

এই কর্মকর্তা জানান, যারা অযোধ্যা ভ্রমণ করছেন তাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় এই নির্দেশগুলো জারি করা হয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছেন, বাবরি মসজিদ ভাঙচুরের বার্ষিকী ৬ ডিসেম্বর। এই দিনটি ঘিরে ১৪৪ ধারা জারি করা জরুরি।

অযোধ্যার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অনুজ কুমার ঝা বলেন, দিওয়ালি, অন্যান্য উৎসব ও সুপ্রিম কোর্টে চলমান শুনানিকে কেন্দ্র করে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এটি কার্যকর থাকবে। ১৪৪ ধারা জারির ফলে অযোধ্যায় চারজনের বেশি মানুষ একসঙ্গে সমবেত হতে পারবেন না। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে প্রতিবছর অযোধ্যায় এই সময়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়ে থাকে।

ইকবাল আনসারী নামের ওই ব্যক্তি বলেন, অযোধ্যায় শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখা ও অপ্রত্যাশিত কর্মকাণ্ড ঠেকাতে এটি প্রয়োজনীয়। বিশ্ব হিন্দু পরিষদও এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। সংগঠনটির আঞ্চলিক মুখপাত্র শারদ শর্মা বলেন, অযোধ্যায় শান্তি ও সম্প্রীতি নিশ্চিত করার যে কোনও পদক্ষেপকে আমরা স্বাগত জানাই।

এছাড়া সুপ্রিম কোর্ট মামলার রায়ও ঘোষণা করতে পারেন। মামলায় মুসলিম পক্ষের একজন মামলাকারী প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারিকে স্বাগত জানিয়েছেন।

ইসমাঈল আযহার/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন