কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি ফিরোজের ১০ দিনের রিমান্ড

প্রকাশিত: ৬:২৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

অস্ত্র ও ইয়াবাসহ র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার রাজধানীর কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি ও কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা শফিকুল আলম ফিরোজের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ শনিবার বিকাল ৫টার দিকে ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম মাহমুদা আক্তার এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে ফিরোজের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাফটকে সতর্কতার সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দিয়েছেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন আজাদ রহমান।

ফিরোজকে আদালতে হাজির করে ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর মধ্যে অস্ত্র আইনের মামলায় ৫ দিন ও মাদকের মামলায় ৫ দিন রিমান্ড দিয়েছেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা আক্তার।

এর আগে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি ফিরোজের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে ধানমন্ডি থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়। এ দুই মামলায় ১০ দিন করে ২০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। অস্ত্র মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হলেন উপপরিদর্শক (এসআই) নুর উদ্দিন ও মাদক মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হলেন উপপরিদর্শক (এসআই) আশিকুর রহমান।

ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গতকাল শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে আটটার দিকে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে হলুদ রংয়ের বিশেষ ধরনের ইয়াবাসহ কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতিকে আটক করে র‌্যাব।

এছাড়া অভিযানে একটি বিদেশি পিস্তল, ক্যাসিনো সামগ্রী ও বিপুল পরিমাণ জুয়া খেলার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় আরও কয়েকজনকে।

অভিযান শেষে র‍্যাব-২’র অধিনায়ক আশিক বিল্লাহ গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের কাছে তথ্য ছিল, এই ক্লাবের ক্রীড়া সংস্থার আড়ালে বিভিন্ন অবৈধ কর্মকাণ্ড পরিচালিত হতো। এর ভিত্তিতেই অভিযান চালানো হয়।

আশিক বিল্লাহ বলেন, এখান এখান থেকে ৫৭২ পিস আমেরিকার তৈরি প্লেয়িং কার্ড, একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, ক্যাসিনো খেলার কয়েন ও গন্ধ নেই এমন নতুন ধরনের হলুদ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। ক্লাবের ভেতর দেখেছি ক্যাসিনো খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম রয়েছে, এ থেকে আমরা মনে করছি এখানে একসময় ক্যাসিনো খেলা হতো।

জিআরএস/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন