গাজায় একাধিক লক্ষ্যবস্তুতে ইসরাইলের বিমান হামলা

প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

ফিলিস্তিনের গাজায় একাধিক লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালানোর কথা জানিয়েছে ইসরাইল সেনাবাহিনী। মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) রকেট হামলার সতর্কতামূলক সাইরেন শুনে ইসরাইলি  প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু নির্বাচনি প্রচারণার মঞ্চ ছাড়তে বাধ্য হন। ইসরাইল দাবি করেছে ফিলিস্তনি ভূখণ্ড থেকে ওই রকেট ছোঁড়া হয়েছে। ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এই ঘটনার কয়েক ঘন্টার মাথায় বুধবার গাজায় অন্তত ১৫টি লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালায় তেল আবিব। এক সপ্তাহ পরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে ইসরাইলের সাধারণ নির্বাচন।

এই নির্বাচনের প্রচারণায় গত মঙ্গলবার (১০ সেপ্টম্বর) দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর আশদোদে এক সভায় যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। সভা চলার মধ্যে রকেট হামলার সতর্কতা জানিয়ে সাইরেন বাজানো হলে মঞ্চ ছেড়ে পালাতে বাধ্য হন নেতানিয়াহু। ইসরাইলের দাবি করে ফিলিস্তিনি ভূখন্ড থেকে ছোঁড়া রকেট প্রতিহত করেছে ইসরাইলি আয়রন ডোম প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। এ ঘটনার কয়েক মিনিট পর তিনি তার বক্তব্য চালিয়ে যান।

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গাজা উপত্যকা থেকে আশদোদ ও অন্য শহর আশকেলনে দিকে দুইটি রকেট ছোঁড়া হয়। মঙ্গলবারের হামলার জবাবে বুধবার পাল্টা হামলা চালানো হয় বলে তারা দাবি করে। ইসরাইলি সেনাবাহিনী দাবি করেছে, গাজায় অস্ত্র উৎপাদন কারখানা, গাজার শাসক দল হামাসের ব্যবহৃত নৌবাহিনীর দফতর ও টানেলসহ ১৫টি লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালানো হয়েছে। এসব হামলায় তাৎক্ষণিকভাবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায় নি।

১৯৬৭ সাল থেকে ফিলিস্তিনের গাজা ভূখন্ডকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে ইসরাইল। ২০০৫ সালে সেখান থেকে বসতি উচ্ছেদ করে সেনা মোতায়েন করে তারা। নিরাপত্তার অজুহাতে স্থল সীমান্তে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে মিশর এবং ওই ছিটমহলকে নৌ অবরোধ করে রেখেছে তেল আবিব। গত দশকে হামাস ও ইসরাইলের মধ্যে তিনটি যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে।

আই.এ/পাবলিক ভয়েস

মন্তব্য করুন